আ.লীগ নেতা সভাপতি ৪০ ও বিএনপি নেতা সম্পাদক ২৫ বছর

66

নড়াইলের কালিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস-চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা গোলাম মোস্তফা প্রায় ৪০ বছর ধরে চাঁচুড়ী বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি। পক্ষান্তরে, ওই কমিটির একটানা প্রায় ২৫ বছর সাধারণ সম্পাদক পদে রয়েছেন বিএনপি নেতা আশরাফুল ইসলাম। মেয়াদোত্তীর্ণ ব্যবস্থাপনা কমিটি দিয়ে বাজারের কার্যক্রম পরিচালনা করায় ক্ষুব্ধ সাধারণ ব্যবসায়ীরা।

এদিকে, মেয়াদোত্তীর্ণ ও স্বেচ্ছাচারী কমিটির বিভিন্ন অনিয়ম, অর্থ আত্মসাতের ও বিরুদ্ধে নির্বাচনের দাবিতে ইমরুল ইসলাম, জান্নাত সরদার ও অসিকুর রহমানসহ দুই শতাধিক সাধারণ ব্যবসায়ীর পক্ষ থেকে গণস্বাক্ষর করে নড়াইল-১ আসনের সংসদ সদস্য, জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। স্বতঃস্ফূর্তভাবে গণস্বাক্ষর কর্মসূচিতে অংশ নেন সাধারণ ব্যবসায়ীরা।

লিখিত অভিযোগে ব্যবসায়ীরা জানান, চাঁচুড়ী বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সরকার পরিবর্তন হলেও বারবার ভোল পালটে দলীয় ক্ষমতা ব্যবহার করেই উভয়েই বছরের পর বছর গুরুত্বপূর্ণ দুটি পদে আসীন আছেন। নিয়ম অনুযায়ী, কার্যনির্বাহী কমিটির মেয়াদকাল ৩ বছর পার হয়ে প্রায় চার দশক অতিবাহিত হলেও নতুন কোনো কমিটি নির্বাচিত হয়নি। নির্বাচনের কোনো উদ্যোগও নেয়নি কার্যনির্বাহী কমিটি।

অভিযোগে আরও জানা যায়, তারা উভয়েই স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালী ও দুর্নীতিবাজ প্রকৃতির হওয়ার কারণে দীর্ঘকাল বাজারের সাধারণ ব্যবসায়ীদের জিম্মি করে রেখেছেন। তারা গুরুত্বপূর্ণ দু’টি পদে থেকে অনিয়ম, দুর্নীতি, অর্থ আত্মসাৎ ও বাজারের সরকারি খাস জমি ও খালের পাড়ে গড়ে ওঠা বাজারের খালের জমি দখলের মেতে উঠেছেন। প্রতিমাসে বাজার থেকে নৈশ পাহারার নামে ব্যবসায়ীদের নিকট থেকে লাখ লাখ টাকা চাঁদা আদায় করলেও ঠিকমতো নৈশ প্রহরীদের বেতন পরিশোধ করেন না। দীর্ঘ ২০-৩০ বছর ব্যবসায়ী সমিতির ফান্ডে জমানো লাখ লাখ টাকার কোনো হদিস নেই।

বাজার কমিটির সভাপতি গোলাম মোস্তফা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘ব্যবসায়ীরা আমাকে ভালোবাসেন বলে আমি দীর্ঘদিন সভাপতি পদে আছি।’ চাঁচুড়ী বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘একটি কুচক্রী মহল তাদের হীনস্বার্থ চরিচার্থ করার জন্য এগুলো করছে। তাদের আনীত অভিযোগ মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যমূলক।’