শেষ দিকের গোলে বাঁচলো রোনালদোর ইউনাইটেড

3

বিবর্ণ ফুটবল খেলেও বড় বাঁচা বেঁচে গেলো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। শেষদিকের গোলে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের মাঠ থেকে ড্র নিয়ে ফিরেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোরা।

ওয়ান্দা মেট্রোপলিটানোয় বুধবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগের ম্যাচটি শেষ হয়েছে ১-১ সমতায়। জোয়ান ফেলিক্সের গোলে অ্যাটলেটিকো এগিয়ে যাওয়ার পর ইউনাইটেডকে ড্র এনে দেন বদলি হিসেবে নামা অ্যান্থনি এলাঙ্গা।

অথচ আক্রমণাত্মক মেজাজে শুরু করা অ্যাটলেটিকো ক্রসবার-দুর্ভাগ্যে না পড়লে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে পারতো। দুই দুইবার বেঁচে যায় ইউনাইটেড।

ম্যাচের সপ্তম মিনিটেই এগিয়ে গিয়েছিল অ্যাটলেটিকো। বাঁ দিক থেকে রেনান লোদির ক্রস ডি-বক্সে পেয়ে ডাইভিং হেডে দারুণ এক গোল করেন ফেলিক্স।

পিছিয়ে পড়েও আক্রমণে ধার বাড়াতে পারেনি ইউনাইটেড। শুরু থেকে নিজের ছায়া হয়ে থাকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ৩৭তম মিনিটে একটি সুযোগ পেয়েছিলেন। কিন্তু ডি-বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া তার শটটি ছিল পোস্টের অনেক ওপরে।

বিরতির আগেই ব্যবধান দ্বিগুণ হতে পারতো। বাঁ দিক থেকে লোদির ক্রসে সামনে থেকে নেওয়া সিমে ভারসালিকো হেড আটকে যায় ক্রসবারে।

দ্বিতীয়ার্ধেও ছন্নছাড়া ফুটবল খেলেছে দুই দল। পিছিয়ে থাকা ইউইনাইটেড ৭৫তম মিনিটে মার্কাশ র্যাশফোর্ডের বদলি হিসেবে নামায় এলেঙ্গাকে।

সেই এলেঙ্গাই ৮০তম মিনিটে দলকে আনন্দের উপলক্ষ্য এনে দিয়েছেন। ফের্নান্দেসের থ্রু বল ডি-বক্সে পেয়ে দারুণ শটে অ্যাটলেটিকো গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ১৯ বছর বয়সী সুইডিশ ফরোয়ার্ড।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মঙ্গলবার রাতে শেষ ষোলোর আরেক ম্যাচে বেনফিকার মাঠে ২-২ গোলে ড্র করেছে আয়াক্স।