পানিতে ছুড়ে ফেলে সন্তানকে হত্যা করলেন মা

2

কুমিল্লার চান্দিনায় পারিবারিক কলহের জেরে চার মাস বয়সী নিজ কন্যাশিশুকে পানিতে ফেলে হত্যা করেছেন মা। এ ঘটনায় ছামিয়া আক্তার বকুল (২০) নামের ওই নারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলার বরকইট ইউনিয়নের শালচর গ্রামে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

চান্দিনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আরিফুর রহমান জাগো নিউজকে এতথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহত শিশু উম্মে সাইফা বরকইট ইউনিয়নের খৈছাড়া গ্রামের মো. ওমর ফারুকের মেয়ে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানায়, ১৭ মাগে বরকইট ইউনিয়নের শালচর গ্রামের আলী আশরাফের মেয়ে ছামিয়া আক্তার বকুলের সঙ্গে একই ইউনিয়নের খৈছাড়া গ্রামের মফিজুল ইসলামের ছেলে মো. ওমর ফারুকের বিয়ে হয়। কয়েকমাস না যেতেই তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ শুরু হয়। এরই মধ্যে চারমাস আগে বাবার বাড়িতে কন্যাসন্তানের মা হন বকুল।

পারিবারিক সমস্যা সমাধানে রোববার (২০ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয়ভাবে সালিশ হয়। সালিশে শিশুটিকে স্বামীর বাড়িতে পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আজ সকালে সন্তানকে একটি ডোবার পানিতে ফেলে দেন মা বকুল। পরে স্থানীয়রা শিশুটিকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে।

এ বিষয়ে চান্দিনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আরিফুর রহমান জানান, শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, প্রাথমিকভাবে ওই নারী হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। এ বিষয়ে শিশুটির বাবা ওমর ফারুক চান্দিনা থানায় একটি হত্যা মামলা করেছেন।