রাশিয়া আক্রমণ করলেও সেনা মোতায়েনের পরিকল্পনা নেই: ন্যাটো

14

রাশিয়া যদি ইউক্রেনে আক্রমণ চালায় তবে ইউক্রেনে সৈন্য পাঠানোর কোনো পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছে ন্যাটো। রোববার এক বিবৃতিতে ন্যাটোর মহাসচিব জেন্স স্টোলটেনবার্গ এমন মন্তব্য করেছেন। ন্যাটোর সদস্য দেশ নয় ইউক্রেন।

রাশিয়া আক্রমণ চালালে ন্যাটো সেনাদের ইউক্রেনে মোতায়েন করা হবে কিনা এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে ন্যাটোর মহাসচিব জানান তেমন পরিকল্পনা নেই। তিনি বলেন, ইউক্রেনে ন্যাটো সেনা মোতায়েনে আমাদের কোনো পরিকল্পনা নেই। আমরা সহায়তার দিকেই বেশি মনোযোগ দিচ্ছি।

তিনি বলেন, ন্যাটোর সদস্য হওয়া এবং শক্তিশালী এবং অত্যন্ত মূল্যবান অংশীদার হওয়ার মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। এটা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

ইউক্রেন নিয়ে উত্তেজনা দিন দিন বাড়ছেই। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সম্প্রতি আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন যে, রাশিয়া হয়তো ইউক্রেনে হামলা চালাতে পারে। যদিও রাশিয়া এমন দাবি উড়িয়ে দিয়েছে।

ইউক্রেন সীমান্তে প্রায় এক লাখ সেনা মোতায়েন করেছেন পুতিন। অপরদিকে পশ্চিমা দেশগুলোর সামরিক জোট ন্যাটোও ইউক্রেনের সীমান্তবর্তী দেশগুলোতে সেনা মোতায়েন করছে বা সামরিক উপস্থিতি বাড়াচ্ছে। কেউই শান্তিপূর্ণ অবস্থান তৈরির মতো কিছু করছে না।

পুতিন বলছেন, যুক্তরাষ্ট্র এবং ন্যাটো রাশিয়ার প্রধান নিরাপত্তা দাবিগুলোর কোনো সমাধান করেনি। তবে তিনি আলোচনার জন্য প্রস্তুত রয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন। অপরদিকে, যুক্তরাষ্ট্র বলছে, ইউক্রেনের ওপর আক্রমণ করার সক্ষমতা এখন রাশিয়ার রয়েছে।

মস্কোর দাবি, ওয়ারশ চুক্তির আগে পূর্ব ইউরোপে ন্যাটোর সামরিক উপস্থিত যেমন ছিল সে অবস্থায় ফিরে যেতে হবে ও রুশ সীমান্তে আক্রমণাত্মক অস্ত্র মোতায়েন না করা যাবে না। সাবেক সোভিয়েত দেশ ইউক্রেনকে ন্যাটো থেকে চিরতরে বহিষ্কার করারও দাবি জানিয়ে আসছে রাশিয়া।