৬ জেলায় মন্দিরে হামলা: বিচারিক তদন্ত স্থগিতই থাকছে

10

দুর্গাপূজা চলাকালে দেশের ছয় জেলায় হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির ও বাড়িঘরে হামলার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় (সংশ্লিষ্ট বিচারিক হাকিমকে (সিএমএম/সিজেএম) তদন্তের নির্দেশ দিয়ে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশের ওপর স্থগিতাদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ।

রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের শুনানি নিয়ে রোববার (৩০ জানুয়ারি) প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বে আপিল বেঞ্চ চেম্বার আদালতের দেওয়া স্থগিতাদেশ বহাল রেখে হাইকোর্টকে রুল নিষ্পত্তি করতে বলেছেন।


আদেশের বিষয়টি  নিশ্চিত করেছেন রিটকারী পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী।

এদিন আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন। রিট আবেদনের পক্ষে ছিলেন সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী।

গত বছর শারদীয় দুর্গাপূজা চলাকালে হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির ও বাড়িঘরে হামলার ঘটনায় গত ২১ অক্টোবর রিট করেন সুপ্রিম কোর্টের দুই আইনজীবী অনুপ কুমার সাহা ও মিন্টু কুমার দাস।

ওই রিটের শুনানি নিয়ে গত ২৮ অক্টোবর ছয় জেলায় হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির, বাড়িঘরে হামলার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। রুলে হিন্দু সম্প্রদায়ের দুর্গাপূজার প্যান্ডেল, মন্দির, বাড়িঘর, জীবন এবং সম্পত্তি রক্ষায় সংশ্লিষ্টদের নিষ্ক্রিয়তা ও ব্যর্থতা কেন অবৈধ হবে না এবং হিন্দু সম্প্রদায়ের জীবন, উপাসনালয় এবং সম্পত্তি রক্ষায় কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চান আদালত।


রুলে স্বরাষ্ট্র সচিব, আইন সচিব, তথ্য, যোগাযোগ ও প্রযুক্তি সচিব, সমাজ কল্যাণ সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, বিটিআরসি চেয়ারম্যান, কুমিল্লা, চাঁদপুর, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম ও রংপুরের ডিসি-এসপিসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়।

পরে হাইকোর্টের এ আদেশ স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ আপিল কররে গত ২১ ডিসেম্বর চেম্বার বিচারপতি আদেশের ওপর স্থগিতাদেশ দিয়ে নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠান।

রোববার আপিল বিভাগ সেই স্থগিতাদেশ বহাল রেখে বিচারপতি জে বি এম হাসানের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চে স্বল্প সময়ে বা তিন মাসের মধ্যে রুল নিষ্পত্তি করতে বলেছেন।