কানাডায় দ্রুত ছড়াচ্ছে ওমিক্রন, বাড়ছে আতঙ্ক

15

কানাডায় মহামারি করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন দিন দিন বেড়েই চলেছে। দেশটির বিভিন্ন প্রদেশে নতুন এ ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হচ্ছে।

এরমধ্যে গত কয়েকদিনে অন্যান্য প্রদেশের তুলনায় আলবার্টা প্রদেশে রেকর্ড সংখ্যক চার হাজার ৭৫২ জন নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন।

আলবার্টা হেলথের চিফ মেডিকেল কর্মকর্তা ডা. ডিনা হিনশ সবশেষ স্বাস্থ্য বুলেটিনে জানিয়েছেন, আলবার্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৪৭০ জন রোগী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এরমধ্যে ৭২ জন আইসিইউতে। আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় প্রদেশটিতে ১১ জন মারা গেছেন।

সংক্রমণ বাড়ায় কানাডার বিভিন্ন প্রদেশে নতুন করে জনমনে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে। ওমিক্রণ মোকাবিলার সতর্কতা হিসেবে এরইমধ্যে প্রদেশের কর্মকর্তারা বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছেন।

কানাডার সর্বাপেক্ষা জনবহুল ও বাণিজ্যিক প্রদেশ অন্টারিওতে গত বুধবার (৫ জানুয়ারি) থেকে দুই সপ্তাহের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, রেস্তোরাঁ। বারগুলোতে ইনডোর ডাইনিং, জিম, অ-জরুরি চিকিৎসার জন্য হাসপাতাল অন্যান্য প্রতিষ্ঠানও বন্ধ রয়েছে।

বুধবার একদিনে রেকর্ড সংখ্যক করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে দেশটিতে। এরমধ্যে আলবার্টা, অন্টারিও, কুইবেক ও ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় সবচেয়ে বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে।

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো নাগরিকদের সতর্ক করে বলেছেন, কোথাও যাওয়ার সময় এটা নয়।

ভ্রমণ সংশ্লিষ্ট সংক্রমণ ঠেকাতে দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জিন ইভেস ডুকলোস বলেছেন, ফেডারেল সরকার ভ্রমণ নির্দেশিকা পরিবর্তনের কথা ভাবছে।

কানাডায় নতুন করে ওমিক্রণ ভাইরাস বেড়ে যাওয়ায় অনেকেই তাদের ভ্রমণ বাতিল করেছেন।