মুমিনুলদের জয়ে কানাডায় প্রবাসীদের বিজয় উল্লাস

13

এ যেন আনন্দ নয়, আনন্দের বন্যা। শুধু সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেই নয়, এর বাইরেও উল্লাস। যা থামাতে পারেনি প্রচণ্ড শীত ও বৈরী আবহাওয়া। এভাবেই কানাডায় বাঙালি প্রবাসীরা মেতে উঠেছে বিজয় আনন্দে।

এই উল্লাস নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক টেস্ট জয়ে। যার প্রকাশ ঘটে কানাডার ক্যালগেরিতে। বাংলাদেশের জয়ে তাৎক্ষণিকভাবে একত্রে মিলিত হয়ে উল্লাসে মেতে উঠেন প্রবাসী বাঙালিরা। উৎসব সুইটস রেস্টুরেন্টে এ আনন্দ বয়ে যায়।

এসময় সবার কণ্ঠে ছিল বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত আর, ‘বাংলাদেশ’ ‘বাংলাদেশ’, ‘সাবাস বাংলাদেশ’ স্লোগান। কিছুক্ষণের জন্য হলেও কানাডায় থেকেও সবাই হারিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশে।

গোলাম খায়রুল বাসার মারুফের নেতৃত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ কানাডা অ্যাসোসিয়েশন অব ক্যালগেরির সভাপতি মো. রশিদ রিপন।

আরও উপস্থিত ছিলেন- ইকবাল রহমান, এএনএম শামস, তানভীর চৌধুরী, অভিজিৎ সাহা, আবদুস সামাদ,মারুফ হক, কেলভিন হোসেন ও শুভ্র দাস শুভসহ অনেকে।

মো. রশিদ রিপন বলেন, এই বিজয় আমাদের সবার। এই বিজয় আমাদের যে কোনো মূল্যে ধরে রাখতে হবে। বাংলার টাইগাররা এভাবেই বাংলাদেশের পতাকাকে বিশ্বের দরবারে সমুন্নত রাখবে এটাই আমাদের প্রত্যাশা।

শুভ্র দাস শুভ বলেন, বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশ আজ উজ্জ্বল নক্ষত্র। এ জন্য সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি আমাদের কৃতজ্ঞতা। আমরা আশা করি বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বল হোক।

ইকবাল রহমান বলেন, শুধু ক্রিকেট নয়, সম্প্রতি ফুটবলেও বাংলাদেশের মেয়েদের সাফল্যে আমরা প্রবাসী বাঙালিরা গর্বিত।

গোলাম খায়রুল বাসার মারুফ বলেন, বিজয়ের এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে আজ আমরা প্রবাসীরা একত্রিত হয়েছি। বাংলাদেশ দল সর্ব ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন করুক এটাই আমাদের কামনা।