এলডিসি থেকে উত্তরণে সবাইকে ধন্যবাদ জানাবে সরকার

4

স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) তালিকা থেকে উত্তরণে বাংলাদেশের সকল স্তরের মানুষকে ধন্যবাদ জানাবে সরকার।
শনিবার (১ জানুয়ারি) জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ বাংলাদেশকে ‘স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণ’ সম্পর্কীত চূড়ান্ত সুপারিশের প্রেক্ষিতে ঢাকায় স্মারক অনুষ্ঠানের প্রি-ইভেন্ট প্রেস ব্রিফিংয়ে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন এ কথা জানান।

তিনি বলেন, আগামীকাল ঢাকায় স্মারক অনুষ্ঠান হবে। এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আমরা সকল স্তরের মানুষদের ধন্যবাদ জানাবো। কারণ তাদেরই ত্যাগ এবং শ্রমের বিনিময়ে এই অর্জন আমরা পেয়েছি। এই অর্জনের অংশীদার হচ্ছেন আমাদের কৃষক, শ্রমিক এবং সাধারণ জনগোষ্ঠী।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে এই অর্জন সম্ভব হয়েছে। খেয়াল করবেন গত ১৩ বছরে আমাদের যে অর্জন, আমাদের যে উন্নয়নের অগ্রগতি ও উন্নয়নের ধারা, আমরা যেভাবে এগিয়ে গেছি তার ফলেই এই অর্জন সম্ভব হয়েছে। তাই এই অর্জনের জন্য অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীকেও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করা হবে বলেও জানান তিনি।

নভেম্বর মাসে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণ সম্পর্কীত চূড়ান্ত সুপারিশ পাওয়া গেলেও বিলম্বে কেন এই স্মারক অনুষ্ঠান, এমন প্রশ্নের জবাবে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন বলেন, ‘গত ২৪ নভেম্বর জাতিসংঘ এটি অনুমোদন করে। এরপরই আমাদের ১৬ ডিসেম্বর ছিলো, কিন্তু সেদিন ছিলো আমাদের বিজয় দিবসের ৫০ বছর পূর্তি সেজন্য আমরা রাষ্ট্রীয় যে প্রোগ্রাম সেটির সঙ্গে এটি এক করিনি।

তিনি বলেন, এ বছর আমরা আমাদের এই উদযাপনটা করবো। এটি অনুষ্ঠানের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকবে না। আমরা সমগ্র দেশব্যাপী সবার কাছে আমরা পৌঁছে দেবো। আমাদের যে উত্তরণ, আমাদের অর্জন এবং উন্নয়নের উত্তরণ সেটি বিভাগ, জেলা-উপজেলার সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য প্রোগ্রাম হাতে নিয়েছি।