নড়াইলে কিডনী ডায়ালাইসিস সেন্টার স্থাপনে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে মাশরাফী

17

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নড়াইল জেলার সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে দীর্ঘদিন ধরেই কাজ করে চলেছে নড়াইল উন্নয়নের স্বপ্নদ্রষ্টা মানবিক এমপি মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা। এমপি নির্বাচিত হওয়ার আগ থেকে সব শ্রেণি-পেশার মানুষদের সঙ্গে ২০১৭ সালের ৪ সেপ্টেম্বর যাত্রা শুরু করেছিলেন নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন। আর এই সংগঠনের মাধ্যমে গরীব অসহায় মানুষের স্বাস্থসেবাসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন।

তারই ধারাবাহিকতায় শনিবার (১৩ নভেম্বর) কিডনি ডায়ালাইসিস সেন্টার স্থাপনের জন্য নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন এবং জেএমআই হসপিটাল রিকুইজিট ম্যানুফ্যাকচারিং লিমিটেডের মধ্যে এক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। এজন্য জাপানি প্রযুক্তির যন্ত্রপাতি দিয়ে নড়াইলে স্থাপন করা হবে একটি অত্যাধুনিক কিডনি ডায়ালাইসিস সেন্টার। যেখানে কম খরচে উন্নত প্রযুক্তির ডায়ালাইসিস সেবা পাবেন নড়াইলবাসী। জেএমআই গ্রুপের পক্ষে প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবদুর রাজ্জাক এবং নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের পক্ষে চেয়ারম্যান মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা চুক্তিতে সই করেন।

চুক্তি স্বাক্ষরিত শেষে মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা বলেন, স্বাস্থ্যসেবায় নড়াইল অনেকটাই পিছিয়ে। এই চুক্তির আওতায় নড়াইলে কিডনি ডায়ালাইসিস সেন্টার হলে মানুষের দুর্ভোগ কমে আসবে।

জানাগেছে, চুক্তি অনুযায়ী কিডনি ডায়ালাইসিস সেন্টার স্থাপন ও পরিচালনায় জাপানি যন্ত্রপাতি এবং কারিগরি দক্ষতা দেবে জেএমআই। আর নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন ডায়ালাইসিস সেন্টার স্থাপনের জায়গাসহ অন্যান্য আনুষঙ্গিক সুবিধা নিশ্চিত করা এবং দক্ষ চিকিৎসক-নার্সদের মাধ্যমে রোগীদের সেবা দেওয়ার ব্যবস্থা করবে।

এ সময় নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা আরও জানান, দেশের অন্যান্য জেলার তুলনায় স্বাস্থ্যসেবায় অনেক পিছিয়ে নড়াইল। আশপাশের বিভিন্ন জেলায় কিডনি ডায়ালাইসিস সেন্টার থাকলেও, নড়াইলে কোন সুবিধা নেই। ফলে অনেকেই কিডনি ডায়ালাইসিসের খরচ মেটানোর সামর্থ্য থাকলেও, যাতায়াত জটিলতায় সেবা নিতে পারেন না। জেএমআইয়ের সঙ্গে চুক্তির আওতায় কিডনি ডায়ালাইসিস সেন্টার স্থাপিত হলে নড়াইলবাসীর দুর্ভোগ অনেকটাই কমে আসবে বলে আমি মনে করি।

জেএমআই গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবদুর রাজ্জাক জানান, দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে যৌথ বিনিয়োগের প্রতিষ্ঠান জেএমআই হসপিটাল রিক্যুইজিট ম্যানুফ্যাকচারিং লিমিটেড। এই প্রতিষ্ঠানে উৎপাদিত মাস্ক, গ্লোভসসহ বিভিন্ন পণ্য দেশের বাজারে সরবরাহের পাশাপাশি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রপ্তানি হচ্ছে। করোনার মধ্যে দেশের প্রথম প্রতিষ্ঠান হিসেবে করোনার মতো সূক্ষ্ণ ভাইরাসপ্রতিরোধী কেএন৯৫ মাস্ক বানিয়েছে জেএমআই হসপিটাল রিক্যুইজিট ম্যানুফ্যাকচারিং লিমিটেড।

মো. আবদুর রাজ্জাক আরও বলে, “কিডনি রোগীদের সেবায় সারা দেশে ডায়ালাইসিস সেন্টার স্থাপনের পরিকল্পনা রয়েছে জেএমআই গ্রুপের। এ উদ্যোগের আওতায় রাজধানীর হলি ফ্যামিলিতে একটি ডায়ালাইসিস সেন্টার চালু রয়েছে। চুক্তি সই হয়েছে নর্থ বেঙ্গল মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতাল-এর সঙ্গেও। এরই ধারাবাহিকতায় নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হলো জেএমআই।”

চুক্তি সই অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, জেএমআই গ্রুপের চেয়ারম্যান জাবেদ ইকবাল পাঠান, নিপ্রো-জেএমআই ডায়ালাইসিস সেন্টার লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক কুনিও (কেনি) তাকামিদো এবং নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম অনিক।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেএমআই সিরিঞ্জেস অ্যান্ড মেডিকেল ডিভাইসেস লিমিটেডের পরিচালক (অর্থ) হিরোশি সাইতো, জেএমআই গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক মো. মহিউদ্দিন আহমেদ ও মো. তানভীর হোসাইন এবং প্রধান অর্থ কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম।