সড়কের ওপর ধানের চারা রোপন করে ব্যতিক্রমি প্রতিবাদ

30

স্টাফ রিপোর্টার : মাত্র এক কিলোমিটার রাস্তা দীর্ঘকাল ধরেও ইটের সলিং বা পাঁকা করতে করতে পারেনি এলাকাবাসী। স্থানীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের কাছে বার বার গিয়েও কোন কাজ হয়নি। নিরুপায় হয়ে রাস্তায় ধানের চারা রোপন করে ও মানববন্ধন করে প্রতিবাদ জানিয়েছেন ভূক্তভোগী এলাকাবাসী।

নড়াইল শহর থেকে মাত্র ২ কিলোমিটার দূরে আউড়িয়া ইউনিয়নের নাকসী গ্রামের এই সড়কটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ। এই সড়ক দিয়ে স্থানীয় শতাধিক পরিবারের সদস্যরা ও স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা যাতায়াত করে। এছাড়া মাঠ থেকে ধান, পাট সহ ফসলাদি বাড়িতে আনেন। কিন্তু বর্ষকালে হাটু সমান কাঁদা হওুয়ায় যাতায়াত ও ফসল আনতে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

সড়ক পাঁকাকরনের দাবিতে শনিবার ভূক্তভোগী গ্রামবাসীর আয়োজনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে নারী-পুরুষ, শিশু-কিশোর, শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন। এসময় প্রতিবাদ স্বরুপ সড়কটিতে ধানের চারা রোপন করে দেয় এলাকাবাসী।

ভূক্তভোগী নাকসী গ্রামের রবিউল ইসলাম, চুন্নু মৃধা, আলামিন মৃধা বলেন, ‘এই এলাকার আশেপাশের রাস্তাগুলো পাকা হলেও মাত্র এক কিলোমিটার রাস্তা কাঁচা থাকায় গ্রামবাসীর যাতায়াতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। শতাধিক পরিবারের কৃষিপণ্য আনা-নেয়াসহ শিক্ষক-শিক্ষার্থী, অসুস্থ রোগিদের হাসপাতালে যাতায়াত ছাড়াও নিত্যদিনের চলাফেরায় চরম কষ্ট হচ্ছে। বর্ষাকাল ছাড়াও অন্য সময়ে একটু বৃষ্টি হলেই এই রাস্তায় পায়ে হেটেও যাতায়াত করা যায় না। গরু বা ঘোড়ার গাড়ি ছাড়া অন্য কোনো যানবাহন এই কাঁদা রাস্তায় চলাচল করতে পারে না।’

নাদিরা বেগম, হুরি বেগমসহ ভূক্তভোগীরা জানান, দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে ইউনিয়ন পরিষদ, জেলা পরিষদসহ বিভিন্ন দপ্তরে অনেক চেষ্টা করেও নড়াইল সদরের আউড়িয়া ইউনিয়নের নাকসী গ্রামের মাত্র এক কিলোমিটার রাস্তা পাকাকরণের দাবিপূরণ হয়নি। তাই কাঁদা রাস্তায় ধানের চারা রোপন করে প্রতিবাদ জানিয়েছেন ভূক্তভোগীরা। ভূক্তভোগী গ্রামবাসী রাস্তাটি দ্রুত পাকাকরণের দাবি জানিয়েছেন।