লকডাউনের বিধিনিষেধ কার্যকর করতে মাঠে থাকবে সশস্ত্র বাহিনী

19

ডেস্ক রিপোর্ট : দেশে করোনাভাইরাসের ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে আজ বৃহস্পতিবার (০১ জুলাই) সকাল থেকে শুরু হচ্ছে এক সপ্তাহের কঠোর বিধিনিষেধ বা লকডাউন। যা আগামী ৭ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত কার্যকর থাকবে বলে জানিয়েছে সরকার। এই বিধিনিষেধ কার্যকর করতে অন্যান্য বাহিনীর সঙ্গে মাঠে কাজ করবে সেনাবাহিনী।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানিয়েছে। বুধবার জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধকল্পে সার্বিক কার্যাবলী বা চলাচলে বিধিনিষেধ কার্যকর করার জন্য ‘ইন এইড টু সিভিল পাওয়ার’-এর আওতায় আগামী (আজ) ১ জুলাই ২০২১ সকাল ৬ ঘটিকা হতে ৭ জুলাই ২০২১ তারিখ মধ্যরাত পর্যন্ত মোতায়েন থাকবে সশস্ত্র বাহিনী। স্থানীয়ভাবে সেনা মোতায়েনের বিষয়ে প্রয়োজনীয় সমন্বয় করবেন জেলা ম্যাজিস্ট্রেট।

এদিকে, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন বুধবার জারি করে বলা হয়েছে, মোবাইল কোর্ট আইন-২০০৯ এর ৫ ধারা অনুযায়ী কর্মকর্তাদের দ্য কোড অব ক্রিমিনাল প্রসিডিউর, ১৮৯৮ এর ১০(৫) ধারা অনুযায়ী এপিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটের ক্ষমতা দিয়ে বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের আওতাধীন মোবাইল কোর্ট পরিচালনার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এর আগে বুধবার দুপুরে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে লকডাউন সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। এতে বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে সেনাবাহিনী, বিজিবি, পুলিশ, র্যা ব ও আনসার নিয়োগ করার কথা বলা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে আরো বলা হয়, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ আর্মি ইন এইড টু সিভিল পাওয়ার- বিধানের আওতায় মাঠ পর্যায়ে কার্যকর টহল নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় সংখ্যক সেনা মোতায়েন করবে। স্থানীয় সেনা কমান্ডারের সঙ্গে যোগাযোগ করে বিষয়টি নিশ্চিত করবেন জেলা ম্যাজিস্ট্রেট।

প্রজ্ঞাপনে আরো বলা হয়েছে, জেলা পর্যায়ের সংশ্নিষ্ট কর্মকর্তাদের নিয়ে সমন্বয় সভা করে সেনাবাহিনী, বিজিবি, পুলিশ, র্যা ব ও আনসার নিয়োগ ও টহলের অধিক্ষেত্র, পদ্ধতি এবং সময় নির্ধারণ করবেন জেলা ম্যাজিস্ট্রেট।