পরীমনির সেই ধর্ষণ মামলায় নাসির-অমি জামিন পেলেন!

27

ডেস্ক রিপোট: দেশে বহুল আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনির ‘ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা’র অভিযোগে দায়ের করা মামলায় জামিন পেয়েছেন ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমি। আজ মঙ্গলবার (২৯ জুন) কারাগারে থাকা এই আসামির জামিন মঞ্জুর করা হয় ।

এ আদেশ দেন ঢাকার সিনিয়র চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শাহজাদী তাহমিদার আদালত। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৫ হাজার টাকার মুচলেকা নেয়া হয় বলে নিশ্চিত করেছে আদালত সংশ্লিষ্ট থানার একটি সূত্র।

এর আগে ৫ দিনের রিমান্ড শেষে নাসির ও অমিকে আদালতে হাজির করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো. কামাল হোসেন। পরে মামলার তদন্ত শেষ হওয়া অবদি কারাগারে রাখার আবেদন করেন তিনি।

অন্যদিকে, আসামিপক্ষের আইজীবীরা নাসির-অমির জামিনের আবেদন করলে বিরোধিতা করে রাষ্ট্রপক্ষ। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে মুচলেকা নিয়ে আগামী ধার্য দিন পর্যন্ত তাদের জামিন দেন আদালত।

এর আগে অপর এক মাদক মামলায় ৭ দিনের রিমান্ড শেষে এই দুই আসামির পরীমনির মামলায় ৫ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়। তখন নিজের শারীরিক সমস্যার কথা উল্লেখ করে নাসির বলেছিলেন, এক মামলায় রিমান্ড থেকে এলাম, ফের রিমান্ডে দিলে মরে যাব। রিমান্ডে দেবেন না, প্রয়োজনে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দেন।

প্রসঙ্গত, গত ৮ জুন ঢাকা বোট ক্লাবে গভীর রাতের ওই ঘটনায় মামলা দায়েরের পর নাসির ও অমিকে ঢাকার উত্তরার একটি বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওই সময় আরো তিন নারীসহ এক হাজার পিস ইয়াবা, বিদেশি মদসহ বিভিন্ন মাদকদ্রব্য উদ্ধারের কথা জানায় ডিবি।

গ্রেপ্তার অন্য তিন জন হলেন- লিপি আক্তার (১৮), সুমি আক্তার (১৯) ও নাজমা আমিন স্নিগ্ধা (২৪)। ওই ঘটনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে বিমানবন্দর থানায় দায়ের করা মামলায় নাসির-অমিকে ৭ দিন করে এবং তিন নারীকে ৩ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়।