দেবহাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগের যন্ত্রণা সইতে না পেরে গলায় গেঞ্জি পেঁচিয়ে বৃৃদ্ধের আত্মহত্যা

39

মাধব দত্ত, সাতক্ষীরা : রোগের যন্ত্রনা সহ্য করতে না পেরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার ভোরে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ ঘটনা ঘটে।

মৃতের নাম মোহাম্মদ আলী (৭১)। তিনি দেবহাটা উপজেলার টাউন শ্রীপুর গ্রামের ইসমাইল গাজীর ছেলে।

দেবহাটা উপজেলার সখীপুর ইউনিয়নের ধোপাডাঙা গ্রামের আকিনুর গাজীর স্ত্রী রাশিদা খাতুন জানান, গত ৫ মে দুপুর দেড়টার দিকে তার বাবা মোহাম্মদ আলীকে প্রস্রাবে জ্বালাপোড়ার কারণে সখীপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। বৃহষ্পতিবার রাতে তিনি বাবার পাশে ছিলেন। শুক্রবার ভোর চারটার দিকে তার ঘুম আসে। ভোর সাড়ে চারটার দিকে বাবা শৌচাগারের পাশের গ্রীলের সঙ্গে পরিহিত গেঞ্জি খুলে গলায় পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছেন মর্মে তাকে ঘুম থেকে ডেকে তোলা হয়। রোগযন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে বাবা আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন বলে তার ধারণা।

সখীপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুল লতিফ জানান, মোহাম্মাদ আলীর চিকিৎসার কোন ত্রুটি ছিল না। আতœহত্যার কারণ কি সেটা তাদের কাছে পরিষ্কার নয়।

দেবহাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিপ্লব কুমার সাহা জানান, বিষয়টি জানার পর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। শুনেছি। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে।