ঐতিহাসিক ৭মার্চে জেলা পর্যায়ে কবিতা আবৃত্তিতে প্রথম সৃষ্টি

51

স্টাফ রিপোর্টার : ঐতিহাসিক ৭মার্চ উদযাপন উপলক্ষে জেলা পর্যায়ে কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতায় ক-বিভাগে প্রথম হয়েছে নাজিফা জান্নাত সৃষ্টি। সে নড়াইল শহর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী। বাবা আবদুস সাত্তার ও মা রনজিনা খানম দুইজনই গণমাধ্যমকর্মী।

রবিবার (০৭ মার্চ )বিকালে জেলা শিল্পকলা একাডেমী হলরুমে নাজিফার হাতে পুরষ্কার তুলে দেন প্রধান অতিথি নড়াইলের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ ইয়ারুল ইসলাম।

এসময় অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ ইউসুফ আলী, জেলা পরিষদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা সাইফুর রহমান, হিলু, অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ রওশন আলী, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আসলাম খান লুলু, সৌরভ ব্যানার্জী, নাঈমা জব্বারী বনানী, নাজমুল হাসান লিজা, আসাদ রহমান, মহিউদ্দিন সহ প্রতিযোগী, অভিভাবকসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

জানাগেছে,ঐতিহাসিক ৭মার্চ উদযাপন উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জেলাব্যাপী ৭মার্চের ভাষণ, বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক কবিতা আবৃত্তি, চিত্রাংকন, নৃত্য ও দেশাত্মবোধক গানের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। গত ৪ মার্চ নড়াইল সদর উপজেলা পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়ে নাজিফা জেলা পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে।

গত ৬মার্চ নড়াইল সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত জেলা পর্যায়ে প্রতিযোগিতায় ক-বিভাগে সর্বোচ্চ নম্বর পেয়ে প্রথমস্থান অধিকার করে। পরবর্তীতে বিভাগীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতা খুলনায় অনুষ্ঠিত হবে।

নাজিফা জান্নাত সৃষ্টি নড়াইল শহর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী হলেও কবিতা আবৃত্তি শিখেছে নড়াইল জেলা শিশু একাডেমীতে। এর আগেও বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে অসংখ্যবার পুরষ্কৃত হয়েছে।

তার এই কৃতিত্বের জন্য জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা মোঃ ওয়ালিউর রহমান, কবিতা আবৃতি শিক্ষক সৌরভ ব্যানার্জীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে।

পড়াশোনার পাশাপাশি তার প্রতিভাকে যাতে আরো বিকশিত করতে পারে সে জন্য সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।