বাংলাদেশ টু মালদ্বীপ প্রমোদতরী চলাচলের সম্ভাবনা

29

সি-ক্রুজ চালু করতে মালদ্বীপের প্রস্তাব বিবেচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শীতে সমুদ্র শান্ত থাকে এবং এই মৌসুমে আমরা বাংলাদেশ-মালদ্বীপ সি-ক্রুজ চালু করতে পারি।

আজ বুধবার গণভবনে ঢাকায় নবনিযুক্ত মালদ্বীপের হাইকমিশনার শিরুজিমাথ সামির সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে গেলে তিনি এ কথা বলেন। পরে প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব হাসান জাহিদ তুষার।

বৈঠকে বাংলাদেশে বিনিয়োগ সম্ভাবনার কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ফিশারিজ ছাড়াও এ দেশে কৃষি ও কৃষিজাত পণ্য, চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য, সিরামিক, ওষুধ, তথ্য-প্রযুক্তি সেক্টর আছে এবং এগুলোর বিষয়েও মালদ্বীপের উদ্যোক্তারা বিবেচনা করতে পারেন। এসব খাতে বিনিয়োগ করার মতো যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে।

গভীর সমুদ্রে মৎস্য সম্পদ আহরণে মালদ্বীপের সঙ্গে অভিজ্ঞতা ও সহযোগিতা বিনিময়ের ওপরও গুরুত্বারোপ করেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় কৃষি উৎপাদনে বাংলাদেশের সফলতার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, দেশে কৃষিপণ্য আছে। পাশাপাশি কৃষি উৎপাদনও দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

মালদ্বীপের শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা করতে আরো বেশি বাংলাদেশে আসার আহ্বান জানিয়ে সরকার প্রধান বলেন, বাংলাদেশে অনেক প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজ, মেডিক্যাল কলেজ, এভিয়েশন বিশ্ববিদ্যালয়, ম্যারিটাইম বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

জবাবে বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য বাড়াতে মালদ্বীপের আগ্রহের কথা জানান হাইকমিশনার। এ ছাড়া মালদ্বীপের রাজধানী মালে আইল্যান্ডের পাশে গড়ে উঠা নতুন শহরে বাংলাদেশি বিনিয়োগের আহ্বান তিনি।

শিরুজিমাথ সামির বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশ সফরে আসবেন। সে সময় এ বিষয়ে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হতে পারে।