‘সম্মিলিত প্রচেষ্টা থাকলে নড়াইলের উন্নয়নের বেগটা আরো বেশি হতো’-দুদক কমিশনার তদন্ত’র একান্ত সচিব

197

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ‘সম্মিলিত প্রচেষ্টা থাকলে নড়াইলের উন্নয়নের বেগটা আরো বেশি হতো’। গত রবিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) নড়াইলের লোহাগড়ায় ৩টি প্রাইমারী স্কুল ভবন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নড়াইলের বিভিন্ন উন্নয়ন সম্পর্কে বক্তব্যে দুর্নীতি দমন কমিশন মাননীয় কমিশনার (তদন্ত) এ এফ এম আমিনুল ইসলামের একান্ত সচিব সৈয়দ রবিউল ইসলাম এ কথা বলেন।

নড়াইলের শিক্ষা ও যোগাযোগসহ বিভিন্ন অবকাঠামো উন্নয়ন সম্পির্কত একটি আলোচনায় দুর্নীতি দমন কমিশনার (তদন্ত) এ এফ এম আমিনুল ইসলামের নড়াইল উন্নয়নের অবদানের কথা তিনি তুলে ধরেন।

সৈয়দ রবিউল ইসলামের বাড়ি নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার লাহুড়িয়ার সৈয়দ পাড়ায়। তিনি ২২তম বিসিএস এডমিন ক্যাডারে সহকারি কমিশনার, এসি ল্যান্ড, ইউএনও, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকসহ নানা পদে চাকুরি করার পর বিগত ২০১৬ সালে দুর্নীতি দমন কমিশন মাননীয় কমিশনার (তদন্ত) এ এফ এম আমিনুল ইসলামের একান্ত সচিব হিসেবে কাজে যোগদান করেন। বর্তমান তিনি উপ-সচিব পদমর্যাদায় দুদক কমিশনের একান্ত সচিব হিসেবেই কর্মরত রয়েছেন। জনশ্রুত আছে জেলা প্রশাসক হওয়ার যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও এ পদে আসতে চাননি তিনি।

নিরাংহকার ,নিরলোভ মানুষটি নড়াইল উন্নয়নে নিজেকে আড়াল করে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন।

নিচের লিংকটা ক্লিক করুন এবং দুর্নীতি দমন কমিশন মাননীয় কমিশনার (তদন্ত) এ এফ এম আমিনুল ইসলামের একান্ত সচিব সৈয়দ রবিউল ইসলামের বক্তব্য শুনুন: