ধর্ষণের শিকার তরুণী জন্মনিবন্ধন করাতে গিয়ে

4

ডেস্ক রিপোর্ট: জন্মনিবন্ধন করাতে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছে কে পোশাক কর্মী। এ ঘটনায় নিলক্ষিয়া ইউনিয়নের উদ্যোক্তা নাজমুল হক বাবুকে (২২) আটক করেছে পুলিশ।

ধর্ষণে সহায়তাকারীকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ। সোমবার রাতে অভিযোগ পাওয়ার পর অভিযান চালিয়ে নিজবাড়ি থেকে ধর্ষক বাবুকে আটক করা হয়।

আটক নাজমুল হক বাবু, বকশীগঞ্জ উপজেলার নিলক্ষিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম নিলক্ষিয়া গ্রামের আবুল কালাম আজাদের ছেলে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বকশীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবু শরিফ জানান, নাজমুল হক বাবু নিলক্ষিয়া ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোক্তা। করোনাকালীন সময়ে চাকরি হারান ধর্ষণের শিকার ওই পোশাক শ্রমিক। সম্প্রতি ঢাকায় অন্য পোশাক কারখানায় চাকরির জন্য চেষ্টা করলে জন্মনিবন্ধনের প্রয়োজন হয়।

নিলক্ষিয়া ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোক্তা নাজমুল হক বাবুর সঙ্গে যোগাযোগ করেন তিনি। চলতি মাসের ১৪ তারিখ জন্মনিবন্ধন করে দেয়ার কথা বলে ওই নারীকে নিলক্ষিয়া ইউনিয়ন পরিষদের নিজ অফিস কক্ষে আসতে বলেন বাবু। পরে জন্মনিবন্ধন করে দেয়ার আশ্বাসে ধর্ষণ করেন।

তাকে ধর্ষণে সহয়তা করেন অপর এক ব্যক্তি। গ্রেফতারের স্বার্থে তার নাম ও ঠিকানা জানায়নি পুলিশ।

বকশীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ধর্ষককে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় দুই জনের নামে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা প্রক্রিয়াধীন।