নরসিংদীতে ভ্রাম্যমাণ আদালত ৩টি ইটভাটা গুড়িয়ে দিয়েছে

9

ডেস্ক রিপোর্ট: নরসিংদীর রায়পুরা ও বেলাবোতে পরিবেশ দূষণ বিরোধী অভিযান চালিয়ে তিনটি ইটভাটাকে গুড়িয়ে দেয়া ও পরিবেশ দূষণের অভিযোগে ১৫ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করেছে পরিবেশ অধিপ্তর।

রোববার দুই উপজেলার ইটভাটাগুলোতে দিনব্যাপী অভিযান চালিয়ে এসব সাজা দেন পরিবেশ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নেতৃত্ব দেন পরিবেশ অধিদফতরের মনিটরিং অ্যান্ড এনফোর্সমেন্ট উইং-এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজী তামজীদ আহম্মেদ। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন নরসিংদীর পরিবেশ অধিদফতরের উপপরিচালক মুহম্মদ হাফিজুর রহমান।

অভিযানে সহযোগিতা করেন স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ সদস্যরা। এসময় বৈধ কাগজপত্র দেখাতে না পারায় তিনটি ইটভাটাই ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেওয়া হয়। ইটভাটা তিনটি হল, রায়পুরা উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের গৌরিপুর গ্রামের আবদুল ওয়াদুদের মালিকানাধীন ফাইভ স্টার ব্রিক ফিল্ড ও রাধানগর গ্রামের আসাদুজ্জামানের মালিকানাধীন পেরাগী ব্রিক ফিল্ড এবং বেলাবো উপজেলার আমলাব ইউনিয়নের আমলাব গ্রামের বশির আহমেদের মালিকানাধীন এসবিএ ব্রিক ফিল্ড। তিনটি ইটভাটার প্রত্যেকটি থেকে পাঁচ লাখ টাকা করে মোট ১৫ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

পরিবেশ অধিদপ্তর বলছে, পরিবেশগত ছাড়পত্র ও জেলা প্রশাসনের লাইসেন্সসহ কোনরকম বৈধ কাগজপত্র ছাড়াই ভাটা তিনটিতে ইট বানানো হচ্ছিল। এছাড়া বিদ্যালয় ও লোকালয়ের কাছাকাছি কৃষি জমি নষ্ট করে দীর্ঘদিন ধরে কার্যক্রম চালানোর অভিযোগ আছে ভাটা তিনটির বিরুদ্ধে। এসব অভিযোগ ও নিজস্ব মনিটরিং এর ভিত্তিতে পরিবেশ অধিদফতরের ভ্রাম্যমাণ আদালত এসব অভিযান চালায়। এসময় ভাটা তিনটির কিলন ভ্যাকু মেশিন দিয়ে গুড়িয়ে দেওয়ার পাশাপাশি ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় পানি দিয়ে তা ধ্বংস করা হয়।

পরিবেশ অধিদফতরের উপপরিচালক মুহম্মদ হাফিজুর রহমান জানান, অভিযানে তিনটি ইটভাটা থেকে ১৫ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। তিনটি ইটভাটারই কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অবৈধ ইটভাটাবিরোধী আমাদের এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।