কথিত ভূমিদস্যু, দুদক মামলার আসামী খান কবিরের ওপর সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ

177

নড়াইলকণ্ঠ ॥ নড়াইলে সাবেক বিএনপি নেতা কথিত ভূমিদস্যু, দুদক মামলার আসামী খান কবির হোসেন কতিপয় দূবৃত্তদের হামলায় আহত হয়েছেন অভিযোগ উঠেছে।

রবিবার (১৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যার দিকে নড়াইল সদরের সংখ্যালঘু এলাকা মুলিয়ায় তার ওপর হামলা চালিয়ে তার ৬টি দাঁত ফেলে দিয়েছে বলেছেন খান কবির নিজেই। জানাগেছে, তার এই হামলার খবর পেয়ে সেখান থেকে স্বজনা তাকে উদ্ধার করে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

খান কবির জানিয়েছেন চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় দুর্বৃত্বরা পিস্তলের বাট দিয়ে তার মাথা, মুখমন্ডলে উপর্যুপরি আঘাত করে। এতে খান কবিরের ৬টি দাঁত পড়ে যায় এবং মাথা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত প্রাপ্ত হন।

এদিকে নাম প্রকাশে অনুচ্ছিক এমন কয়েকেজন স্থানীয়রা জানান, বিষয়টি সাজানো নাটকও হতে পারে। যাদের নাম শুনছি এরা তো তারই লোকজন। এর আগেও মুলিয়ায় বাজারের সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধনে কবির খানের সাথে এসব লোকজন ছিলো।

পুলিশ ও ভুক্তভোগীর স্বজনরা জানায়, ব্যবসায়ীক কাজে খান কবির রবিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে মুলিয়া বাজারে অবস্থানকালে কতিপয় লোক চাঁদা আদায়ের জন্য তাকে ডেকে তার ঘেরে নিয়ে এ ঘটনা ঘটায়।

উল্লেখ্য, খান কবির হোসেন নড়াইল সদর পৌরসভার ভাদুলীডাঙ্গা গ্রামের মৃত খান নুরল ইসলামের ছেলে। তরুণ বয়সে তিনি স্থানীয় হাটে-বাজারে লেবুর ব্যবসা করতেন। এ কারণে তিনি স্থানীয়দের মধ্যে লেবু কবির হিসেবে পরিচিত।