বাংলাদেশসহ জাতিসংঘের ১৫৩টি দেশ পারমাণবিক অস্ত্র ত্যাগ করতে বললো ইসরায়েলকে

11

ডেস্ক রিপোর্ট: স্থানীয় সময় সোমবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে ইসরায়েলকে পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষা, উৎপাদন, উন্নয়ন, হালনাগাদ ও পারমাণবিক সামগ্রী মজুদ করা থেকে বিরত থাকার আহ্বানে রেজ্যুলেশন পাশ করা হয়। প্রস্তাবে ভোট গ্রহণ হয়।

প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দেয় বাংলাদেশসহ ১৫৩টি দেশ। বিপক্ষে ভোট দেয়া ৬টি দেশ হলো-ইসরায়েল, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, মার্শাল আইসল্যান্ড, মাইক্রোনেশিয়া ও পালাউ। ভোট দেয়া থেকে বিরত থাকা ২৫ দেশের মধ্যে রয়েছে ভারত, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, নেদারল্যান্ড, ফ্রান্স, জার্মানি ও ইতালি। গত বছর একই রেজ্যুলেশন ১৫২-৬ ভোটে পাশ হয়েছিলো। ভোট দেয়া থেকে বিরত ছিলো ২৪টি দেশ।

জাতিসংঘের প্রস্তাবনায় বলা হয়, ‘এই অঞ্চলের দেশগুলোর মধ্যে পারস্পরিক বিশ্বাস তৈরি করার গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপের অংশ হিসেবে এবং শান্তি ও সুরক্ষার অগ্রগতির জন্য ইসরায়েলকে তাদের অ-সুরক্ষিত পারমাণিক অস্ত্র ও সামগ্রী ত্যাগ করতে হবে।’ এছাড়া জাতিসংঘের ‘পারমাণবিক অস্ত্র মুক্ত মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চল’ বিষয়ক আলাদা একটি রেজ্যুলেশন ১৭৪-২ ভোটে পাশ হয়। ইসরায়েল ও যুক্তরাষ্ট্র বিপক্ষে ভোট দেয়।

ইসরায়েল বিশ্বের নয়টি পারমাণবিক শক্তিধর দেশগুলোর মধ্যে একটি। কিন্তু দেশটি প্রকাশে পারমাণবিক অস্ত্রের কথা স্বীকার করে নি। বাকি আটটি স্ব-ঘোষিত পারমাণবিক শক্তিধর দেশের মধ্যে ৫টি দেশ-যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, রাশিয়া, ফ্রান্স ও চীন ‘পারমাণবিক অস্ত্রের বিস্তার নিয়ন্ত্রণ চুক্তি’তে স্বাক্ষর করেছে। চুক্তিতে না আসা বাকি তিন দেশ-ভারত, পাকিস্তান ও উত্তর কোরিয়া পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষা ও মজুদের কথা স্বীকার করেছে। ইসরায়েল ব্যতীত জাতিসংঘের ১৯১টি দেশ এই চুক্তিতে অংশ নিয়েছে।

সোমবার জাতিসংঘের এই প্রস্তাবনায় ইসরায়েলকে ‘পারমাণবিক অস্ত্রের বিস্তার নিয়ন্ত্রণ চুক্তি’তে আসার আহ্বান জানানো হয়।