খাগড়াছড়িতে নারীকে গণধর্ষণ, সাতজন গ্রেফতার

18

খাগড়াছড়িতে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী নারীকে (২৬) গণধর্ষণের ঘটনায় সাতজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে গ্রেফতারকৃতদের নাম-পরিচয় এখনও জানানো হয়নি।

বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে খাগড়াছড়ি জেলা শহরের গোলাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন বলপাইয়ে আদাম এলাকায় গণধর্ষণের এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সদর থানায় মামলা করা হয়েছে। নির্যাতনের শিকার ওই নারীকে খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ঘটনার সঙ্গে জড়িতরা চট্টগ্রামে অবস্থান করছেন এমন খবরে শুক্রবার রাতে অভিযানে নামে পুলিশ। শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) ভোরে চট্টগ্রামের পাহাড়তলী ও আকবর শাহ থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে খাগড়াছড়ি সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রশিদ বলেন, চট্টগ্রামের পাহাড়তলী ও আকবর শাহ থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এখনও অভিযান অব্যাহত রয়েছে। অভিযান শেষে বিস্তারিত জানানো হবে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গভীর রাতে সবাই যখন ঘুমে তখন সাবল দিয়ে দরজা ভেঙে ঘরের ভেতরে ঢুকে বাড়ির মালিক, তার স্ত্রী ও বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী মেয়ের হাত-মুখ বেঁধে ফেলে দুর্বৃত্তরা। পরে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী মেয়েকে পাশের রুমে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে তারা। এ সময় তারা বাড়ির আলমারি থেকে তিন ভরি স্বর্ণ, নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন লুট করে বাইরে থেকে ঘর আটকে দিয়ে পালিয়ে যায়।

বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকালের দিকে গৃহকর্ত্রীর চিৎকারে স্থানীয়রা এসে তাদের উদ্ধার করে। এ ঘটনায় গণধর্ষণের শিকার নারীর মা বাদী হয়ে অজ্ঞাত নয়জনকে আসামি করে মামলা করেন।