করোনা উপসর্গ দেখা দেয়ায় ১১ ক্রিকেটার আইসোলেশনে

14

ক্রীড়া ডেস্ক ॥ করোনা উপসর্গ দেখা দেয়ায় নতুন ১০ জনসহ মোট ১১ জন ক্রিকেটারকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। উপসর্গ দেখা দেয়া দুই ক্রিকেটারের সংস্পর্শে আসায় তাদেরকে আইসোলেশনে পাঠানো হয়। হোয়াটসঅ্যাপ বার্তার মাধ্যমে এমনটি নিশ্চিত করেছে বিসিবি।
আজ হোয়াটসঅ্যাপে এক বার্তায় বিসিবি জানায়, ১৮ ও ১৯ সেপ্টেম্বর পরীক্ষার পর সকল ক্রিকেটারের করোনা নেগেটিভ এসেছে।
আইসোলেশনে পাঠানো ১১জন ক্রিকেটারের মধ্যে ১০জন ঢাকার বাইরে থেকে এসেছিলেন। অন্যজন সাইফ হাসানের দুবার করোনা নেগেটিভ আসায় আইসোলেশনে যান। বিসিবি পরিচালিত প্রথম ধাপের করোনা পরীক্ষায় সাইফের পজিটিভ আসে।
মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের একাডেমি ভবনে ১১জন ক্রিকেটার বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন।
১১জনের মধ্যে পাঁচ ক্রিকেটার- এবাদত হোসেন, নাইম হাসান, মোহাম্মদ মিঠুন, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও নাজমুল হোসেন শান্ত একাডেমি গ্রাউন্ডে ফিটনেস ট্রেনিংএ ঘাম ঝড়াচ্ছেন। অন্য ছয়জন- সাইফ হাসান, হাসান মাহমুদ, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, আবু জায়েদ রাহি, শফিউল ইসলাম ও সাইফউদ্দিন বিশ্রামে আছেন।
অন্য ১৬জন আজ থেকে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে স্কিল ক্যাম্প শুরু করেছেন। এই ১৬জন ক্রিকেটার ইতোমধ্যে সোনারগাঁও হোটেলে উঠেছেন এবং জৈব-সুরক্ষা পরিবেশে আছেন।
হোয়াটসঅ্যাপে এক বার্তায় বিসিবি জানায়, ‘১৮ ও ১৯ সেপ্টেম্বর স্কিল ক্যাম্পের ২৭জন ক্রিকেটারের করোনা পরীক্ষা করা হয়। এরমধ্যে, দু’জন ক্রিকেটারের মধ্যে করোনা উপসর্গ ‘বর্ডারলাইন নেগেটিভ’ দেখাচ্ছে এবং একজনের কোভিড-১৯এর মতো লক্ষণ দেখাচ্ছে।’
পরবর্তী করোনা পরীক্ষার আগে ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত আইসোলেশনে থাকবেন তারা। ক্যাম্পের জন্য ডাক পাওয়া ২৭ ক্রিকেটারের ঐ দিন আবারো সতর্কতা হিসেবে করোনা পরীক্ষা করা হবে।
‘কোভিড-১৯ পরিচালনার গাইডলাইন অনুসারে এবং জৈব-সুরক্ষা পরিবেশের মান বজায় রাখতে, তাদের সাথে সম্প্রতি সংর্স্পশে আসা ক্রিকেটাররা, পরবর্তী ২২ সেপ্টেম্বর পরীক্ষার আগ পর্যন্ত আইসোলেশনে থাকবেন।’
আগামী ২২ সেপ্টেম্বর করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ আসা ক্রিকেটাররা অনুশীলনে যোগ দিতে পারবেন।