নারায়ণগঞ্জে মসজিদে এসি বিস্ফোরণে মৃত্যু বেড়ে ১২

30

নারায়ণগঞ্জের পশ্চিম তল্লা এলাকার বায়তুল সালাত জামে মসজিদে ভয়াবহ এসি বিস্ফোরণের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

আজ শনিবার সকাল ১২টার সময় এই তথ্য নিশ্চিত করেন শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের প্রধান সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন। এর মধ্যে গতরাত ১টার সময় প্রথমে মৃত্যুবরণ করে জুয়েল নামের একটি শিশু।

এদিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ক্যাম্প পুলিশ ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া।

মৃত ১২ জন হলেন- রিফাত (১৮), মোস্তফা কামাল (৩৪), জুবায়ের (১৮), সাব্বির (২১), কুদ্দুস ব্যাপরী (৭২), হুমায়ুন কবির (৭০), ইব্রাহিম (৪৩), মোয়াজ্জিন দেলোয়ার হোসেন (৪৮), জুনায়েদ (১৭), জামাল (৪০), জুবায়ের (৭) ও রাসেল (৩৪)।

ডা. সামন্ত লাল সেন আরো বলেন, আমাদের এখানে ৩৭ জনকে ভর্তি করা হয়েছে। প্রত্যেকেরই শরীরের অন্তত ৩০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। এখনও যারা বেঁচে আছেন, তাদের মধ্যেও কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। আমরা আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাত পৌনে ৯টার দিকে মসজিদের ভেতরে থাকা এসি হঠাৎ করেই বিস্ফোরিত হয়। তখন এশার নামাজের জামাত মাত্র শেষ হয়েছে। এ সময় মসজিদের ভেতরে ৫০ জনের অধিক মুসল্লি ছিলেন। মুহূর্তের মধ্যেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে। হুড়োহুড়ি করে বের হতে গিয়েও অনেকে দগ্ধ হয়েছেন। এখন পর্যন্ত মোট ৪০ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে, মৃত্যুবরণ করেছেন ১২জন।