নড়াইলে করোনায় স্কুল শিক্ষকের মৃত্যু

75

করোনায় আক্রান্ত হয়ে নড়াইলের কালিয়া উপজেলার বড়দিয়ার শেখ ফজিলাতুন্নেছা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আরিফুল ইসলাম চৌধুরী (৫৭) মারা গেছেন। শুক্রবার দিবাগত রাতে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। একই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও আরিফুলের স্ত্রী আসমা চৌধুরীও (৪৭) করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন আছেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, করোনার উপসর্গ নিয়ে পাঁচদিন আগে অসুস্থ হন শিক্ষক আরিফুল ইসলাম। তাকে প্রথমে কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে আরিফুলকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

শুক্রবার বিকালে করোনার রিপোর্ট পজেটিব আসে এবং ওইদিন রাতে তিনি মারা যান। তবে, আরিফুল দম্পতির একমাত্র সন্তান দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ফাহিম চৌধুরী করোনামুক্ত আছেন।

সিভিল সার্জন ডা. আবদুল মোমেন জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নড়াইলে নতুন করে ২২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে নড়াইল সদরে পুলিশ সুপারসহ ১৬ জন এবং লোহাগড়া উপজেলায় ছয়জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে নড়াইলে মোট ৫০৯ জনের করোনা শনাক্ত হলো। এর মধ্যে ২১২ জন সুস্থ হয়েছেন এবং ৯ জন মারা গেছেন।