সাতক্ষীরায় করোনা জয়ী স্বাস্থ্যকর্মী সুমনকে ফুল দিয়ে অভিনন্দন জানালেন জেলা প্রশাসক

71

মধাব দত্ত, সাতক্ষীরা : সাতক্ষীরায় নিজ বাড়িতেই আইসোলেশনে থেকে করোনা জয় করলেন যশোরের শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল টেকনিশিয়ান মাহমুদুল হক সুমন। শুক্রবার দুপুর ১২টায় সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল ও সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন শাফায়েত সর্বশেষ দুটি রিপোর্টে করোনা নেগেটিভ আসায় তাকে ছাড়পত্র দেন।

এসময় তাকে ফুল দিয়ে অভিনন্দন জানান জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল। একই সাথে তাকে আরও কিছুদিন বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দেন তিনি।

জেলা প্রশাসক তার করোনা জয়ের খুশির খবরটি সঙ্গে সঙ্গে খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ড. মুহা. আনোয়ার হোসেন হাওলাদারকে জানান।

এসময় খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ড. মুহা. আনোয়ার হোসেন হাওলাদারও মোবাইলে করোনা জয়ী স্বাস্থ্য কর্মী মাহমুদুল হক সুমনকে অভিনন্দন জানান এবং তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের খোঁজখবর নেন।
এদিকে, মেডিকেল টেকনিশিয়ান মাহমুদুল হক সুমন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রথমে খুবই ভয় পেয়েছিলাম। জেলা প্রশাসক ও সদর ইউএনও স্যার এবং সিভিল সার্জন স্যার সবসময় আমার খোঁজখবর নিয়েছেন। সর্বাত্মক সহযোগিতা করেছেন। তাদের প্রতি আজীবন কৃতজ্ঞ থাকবো।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ এপ্রিল যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যলয়ের পরীক্ষাগার থেকে সুমন করোনা পজেটিভ বলে জানালে সাতক্ষীরা শহরের উত্তর কাটিয়ার ভাড়া বাসায় আসেন যশোরের শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল টেকনিশিয়ান মাহমুদুল হক সুমন। শার্শা থেকে আক্রান্ত হলেও তিনিই সাতক্ষীরার প্রথম করোনা রোগী হিসেবে বিবেচিত হন। তার গ্রামের বাড়ি সাতক্ষীরা সদর উপজেলার লাবসা ইউনিয়নের রাজনগর গ্রামে।