বেকারদের স্বাবলম্বী হতে ২ হাজার কোটি দেবে সরকার

134

নড়াইল কণ্ঠ : দেশের বেকার তরুণ-তরুণীরা যাতে স্বল্প সুদে ঋণ নিয়ে ব্যবসা-বাণিজ্য করতে পারেন। তাদের যাতে বেকার হয়ে ঘুরে বেড়াতে না হয়, সেজন্য সরকার কর্মসংস্থান ব্যাংকে দুই হাজার কোটি টাকা আমানত দেবে সরকার।

আজ বৃহস্পতিবার (১৪ মে) প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে কর্মহীন অসহায় মানুষের জন্য সরাসরি মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে নগদ অর্থ পাঠানো কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান।

একই অনুষ্ঠানে তিনি দেশের স্নাতক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকাও মোবাইল ব্যাংকিং তথা ডিজিটাল উপায়ে বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা যখন প্রথমবার সরকার গঠন করি (১৯৯৬ সাল) তখন দেশের যুবক শ্রেণি যাতে বেকারত্বের অভিশাপ নিয়ে ঘুরে না বেড়ায়, সেজন্য একটা বিশেষ ব্যাংক করে দিয়েছিলাম- সেটা হলো কর্মসংস্থান ব্যাংক। ব্যাংকটি এখনও আছে। শিক্ষিত হোক আর অশিক্ষিত হোক, যেকোনো তরুণ-তরুণী কোনো জামানত ছাড়াই এই ব্যাংক থেকে স্বল্প সুদে দুই লাখ টাকা ঋণ নিতে পারবেন। যা দিয়ে তারা নিজেরা কিংবা বন্ধু-বান্ধব মিলে ব্যবসা করতে পারবেন। এ জন্য আমরা কর্মসংস্থান ব্যাংক করে দিয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ঋণ প্রদান বৃদ্ধি করার জন্য এই কর্মসংস্থান ব্যাংকে আরো দুই হাজার কোটি টাকার বিশেষ আমানত দেওয়া হবে। সেখান থেকে দেশের যুবক শ্রেণি ঋণ নিতে পারবে, তা দিয়ে ব্যবসা-বাণিজ্য করে নিজেরা স্বাবলম্বী হতে পারবে। যাতে তাদের বেকার হয়ে ঘুরে বেড়াতে না হয়।

এ সময় করোনা পরিস্থিতির কারণে সৃষ্ট সংকটে সামাজিক সুরক্ষা বেষ্টনীর আওতায় দেশের কর্মহীন হয়ে পড়র অসহায় ৫০ লাখ পরিবারের কাছে নগদ অর্থ সহায়তা কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে এসব অর্থ সংশ্লিষ্ট পরিবারের কাছে পৌঁছে যাবে।

এ ছাড়া ঈদ উপলক্ষে দেশের সব মসজিদের ইমাম ও মুয়াজ্জিনের জন্য বিশেষ আর্থিক সহায়তার ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী। কওমি মাদরাসাগুলোতে আরো সহায়তা দেওয়া কথা জানান।