সৌদি আরব ৯/১১ হামলায় সম্পৃক্ততার প্রমাণ নেই, এফবিআইয়ের ভুল স্বীকার

50

নড়াইল কণ্ঠ ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের টুইন টাওয়ারের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর বিমান হামলার ঘটনায় এক সৌদি কূটনীতিকের নাম ভুল করে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে বলে স্বীকার করেছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই। এ সংক্রান্ত এক মামলার শুনানির জবাব দিতে গিয়ে ওই ঘটনা ঘটান সংস্থাটির সন্ত্রাসদমন বিভাগের সহকারী পরিচালক জিল স্যানবর্ন।

এফবিআইয়ের বিবৃতিতে মুসায়েদ আহমেদ আল-জাররাহ নামের ওই সৌদি কূটনীতিকের নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়। যিনি ১৯৯৯-২০০০ সাল পর্যন্ত ওয়াশিংটনে অবস্থিত সৌদি দূতাবাসে মধ্য পর্যায়ের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন।

মার্কিন কর্তৃপক্ষ বিশ্বাস করে, ২০০০ সালের জানুয়ারিতে আল-জাররাহ দুইজন ব্যক্তিকে দিক-নির্দেশনা দিয়েছিলেন। এদের একজন হলেন ফাহাদ আল-থুমাইরি অন্যজন ওমর আল-বায়োমি। দুইজনের মধ্যে আল-থুমাইরি ছিলেন একজন ইমাম ও আল-বায়োমি ছিলেন সন্দেহভাজন এক সৌদি এজেন্ট। তিনি বিমান ছিনতাইকারীদের হামলার আগে যুক্তরাষ্ট্রে সেটেল হতে সাহায্য করেন।

আল-জাররাহ বর্তমানে কোথায় আছেন তা অজানা। তবে ধারণা করা হচ্ছে, তিনি সৌদি আরবে আছেন।

গত সোমবার এফবিআই কর্তৃপক্ষের সঙ্গে এ প্রসঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে ইয়াহু নিউজ। তারা জানায়, এ বিষয়ে আমরা আদালতকে অবহিত করেছি এবং আমাদের বক্তব্য প্রত্যাহার করেছি।

২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের টুইন টাওয়ারে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। তাতে ২ হাজার ৯৯৭ জন নিহত হন, আহত হন ৬ হাজারেরও বেশি মানুষ। ১০ বিলিয়ন ডলারের এ বাণিজ্যিক ভবনটি নিয়ে মার্কিনিরা গর্ব করতো।

এ হামলার দায় আল-কায়দার ওপর চাপিয়ে আফগানিস্তানে হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র। শুধু আফগানিস্তান নয়, তখন থেকে কথিত সন্ত্রাসবিরোধী যুদ্ধের নামে বিভিন্ন মুসলিম দেশে হামলা চালিয়ে আসছে আমেরিকা।