নড়াইলে স্ট্রোকজনিত কারণে যুবকের মৃত্যু, আতঙ্ক নয়, সতর্ক হউন

141

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইলে এক সুপারি ব্যবসায়ীর হার্ট অ্যাটাক বা স্ট্রোকজনিত কারণে মৃত্যু হয়েছে।’ সে নড়াইল পৌরসভার দক্ষিণ নড়াইলের ওমর আলীর ছেলে শওকত আলী (২৫)। মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) রাতে নড়াইল সদর হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে শওকত আলীর স্ট্রোকজনিত কারণে মৃত্যুকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক ও অনলাইন পত্র-পত্রিকায় করোনায় মৃত্যুর বিষয়টি ফলাও করে প্রকাশ করায় জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি হচ্ছে বলে বিশেষ মহল ধারনা করছে।

এ ধরণের প্রচারনা থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানিয়ে নড়াইল প্রেসক্লাবের সভাপতি এনামুল কবীর টুকু তার ফেসবুকে তার সহকর্মী ও নড়াইলবাসির উদ্দেশ্যে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন, যা নিম্নে হুবহু তুলে ধরা হলো:

এনামুল কবীর টুকু ,সভাপতি, নড়াইল প্রেসক্লাব:
প্রিয় সাংবাদিক সহকর্মীগণ ও নড়াইলবাসি, আন্তরিক শুভেচ্ছা ও শুভকামনা সকলের জন্য। সারা বিশ্বের মত বাংলাদেশেও করোনার বিরুদ্ধে মহাযুদ্ধ চলছে। করোনা প্রতিরোধে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজাসহ স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহনের বার্তা দেয়া হচ্ছে। কিন্তু নানা কারনে আমরা সে বার্তা যথাযথভাবে পালন করতে পারছি না। আমরা বুঝতে পারছি না , আমরা কতটা ঝুঁকির মধ্যে দিন কাটাচ্ছি। আমাদেরকে আরো কিছুদিন সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে এবং হোম কোয়ারন্টেন মেনে চলতে হবে। সংবাদকর্মীদের কাছে আমার একান্ত অনুরোধ, করোনা (আক্রান্ত বা মৃত্যু) বিষয়ে খবর প্রকাশে আমাদের আরো সচেতন হওয়া দরকার। আমরা এমন কোন খবর প্রকাশ করবো না যাতে সমাজে এবং দেশে আতংক ছড়ায়। আর চিকিৎসকদের নিকট অনুরোধ কোন মৃত্যুর খবরে ফেসবুকে ভিন্ন ভিন্ন মত প্রকাশ করবেন না। তাহলে সাধারণ মানুষের মনে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়।

অপরদিকে এ বিষয়ের ওপর সহযোদ্ধাদের উদ্দেশ্যে আরো একটি স্ট্যাটাস দেন সাপ্তাহিক নড়াইল কণ্ঠ এর সম্পাদক। যা নিম্নে হুবহু তুলে ধরা হলো:

সম্পাদক, নড়াইল কণ্ঠ , সাপ্তাহিক ও অনলাইন পত্রিকা:
প্রিয় সহযোদ্ধা, আসচ্ছালামুআলাইকুম, আশা করি ভালো আছেন। কোভিড-১৯ নিয়ে সোস্যাল মিডিয়ায় অহেতুক জনমনে আতঙ্ক তৈরি হয় এমন কোন তথ্য, কমেন্টস, লেখালেখি না করি। অতি উৎসাহ বা আপনার আবেগি লেখায় আপনার পরিবার, সমাজ ও দেশের বড়ধরনের ক্ষতি ডেকে আনতে পারে। বিষয়গুলি থেকে বিরত থাকার জন্য আপনাকে অনুরোধ করছি। মনে রাখবেন এইমূর্হুতে জনমনে আতঙ্ক নয়, সচেতনতামূলক প্রচারনই জরুরি।

পারিবারিক সূত্র জানায়, শওকত গত ৩/৪ দিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। সর্দি, জ্বর, শ্বাসকষ্ট ও বমি নিয়ে একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন থাকার পর মঙ্গলবার রাতে তিনি সদর হাসপাতালে ভর্তি হন।

সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তৌহিদুল ইসলাম তুহিন বলেন, ‘শওকত বুকে ব্যথা, বমি, জ্বর, সর্দি-কাশির উপসর্গ নিয়ে ভর্তি হয়েছিলেন।’

নড়াইল সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. আ, ফ, ম, মশিউর রহমান বাবু বলেন, ‘কোনো করোনা আক্রান্ত রোগী ভর্তির ১৫ মিনিট পরে মারা যেতে পারে না। ধারণা করা হচ্ছে, হার্ট অ্যাটাক বা স্ট্রোকজনিত কারণে ওই রোগীর মৃত্যু হয়েছে।’ মৃত্যুর কারণ জানার জন্য প্রয়োজনে নমুনা সংগ্রহ ও প্রয়োজনী পদক্ষেপ স্বাস্থ্য বিভাগ গ্রহণ করবেন বলে জানান তিনি।

নড়াইলে যুবকের মৃত্যু, এলাকায় করোনা আতঙ্ক
https://unb.com.bd/bangla/category/

শাসকষ্ট ও বমি নিয়ে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তির পর যুবকের মৃত্যু আরএমও বল্লেন মিনি স্ট্রোক এদিকে মৃত্যুর ঘটনায় বিভিন্ন গুজব চলছে শহর জুড়ে
https://dainikamaderkantho.com/