নড়াইলে স্বামীর নির্যাতনে আত্মহত্যা

42

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইলের লোহাগড়ায় স্বামীর নির্যাতনে অতিষ্ট হয়ে শুকলা নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। গত মঙ্গলবার (১৭ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে তিনি বিষপান করে আত্মহত্যা করেন। বুধবার (১৮ মার্চ) নড়াইল সদর হাসাপাতালে তাঁর লাশের ময়নাতদন্ত করা হয়েছে।
শুকলা নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার মল্লিকপুর ইউনিয়নের মহিষাপাড়া গ্রামের দিদার মোল্লার স্ত্রী। ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার শেখপুর গ্রামের ছোরাপ বিশ্বাসের মেয়ে তিনি। আট বছর আগে দিদারের সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়। তাঁদের পাঁচ বছর বয়সী দুটি যমজ কন্যা সন্তান রয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে বিষপান করলে শ্বশুর বাড়ির লোকজন লোহাগড়া হাসপাতালে তাঁকে নিয়ে আসে। হাসপাতালে আসার পর তাঁর মৃত্যু হয়।
শুকলার পরিবারের সদস্যরা জানান, বাবার বাড়িতে যেতে দিত না তাঁর স্বামী। এমনকি বাবা-মা এবং ভাই-বোনের সঙ্গে যোগাযোগও করলেও মারধরের শিকার হতে হতো শুকলাকে। গত এক-দেড় বছর হলো নির্যাতন বেড়ে গিয়েছিল শুকলার ওপর।
শুকলার মেজ বোন সাবানা অভিযোগ করেন, দিদার মাদকাসক্ত। মাদকসেবনে বাধা দেওয়ায় প্রায়ই মারধর করত শুকলাকে। বাবার বাড়ি থেকে টাকা এনেও দিতে বলত। এ অবস্থায় শারীরিক ও মানসিক নির্যাতের শিকার হয়ে অবশেষে আত্মহত্যা করে শুকলা।
লোহাগড়া থানার ওসি মো. আলমগীর হোসেন বলেন, ‘শ্বশুরবাড়ির লোকজন পালিয়েছে। শ্বশুরবাড়িতে মারা গেছে, তাই আমরা আইনগত দিক ঠিকঠাক মতো দেখবো।’