খালেদার জামিনের বিষয়টি সম্পূর্ণভাবে আদালতের এখতিয়ার

0
42
Tuli-Art Buy Best Hosting In chif Rate In Bd

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জামিনের বিষয়টি সম্পূর্ণভাবে আদালতের এখতিয়ার। বিএনপির নেত্রীর জেলে থাকা স্বল্প, মধ্যম নাকি দীর্ঘমেয়াদী হবে তার সিদ্ধান্ত নেবে আদালত। খালেদা জিয়া উচ্চ আদালতে আপীল করেছেন। উচ্চ আদালত যদি তাঁকে জামিন দেয় তো আমাদের করার কিছু নেই। এর সঙ্গে সরকারের কোন সম্পর্ক নেই।
রবিবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের সেমিনার হল রুমে আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির প্রথম সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাখতে গিয়ে তিনি আরও বলেন, আদালত যদি অনুমতি দেয়, খালেদা জিয়া নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করলেও আমাদের করার কিছু নেই। সম্পূর্ণ বিষয়টিই আদালতের বিষয়।
খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে দলটি শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করলে ঘরে বসে কিংবা অফিসে বসে করার পরামর্শ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, আপনারা (বিএনপি) শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের কর্মসূচীকে সংঘর্ষের দিকে নিয়ে যাচ্ছেন। শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে কেউ বাধা দিচ্ছে না। তবে রাস্তা বন্ধ করে কোন সভা-সমাবেশ করা যাবে না। ঘন্টার পর ঘন্টা রাস্তা বন্ধ করে আন্দোলন করে মানুষের দুর্ভোগ সৃষ্টি করছে বিএনপি। বিএনপির নেতাদের উদ্দেশ্যে করে তিনি বলেন, আপনারা যদি শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করেন তাহলে ঘরে বসে করুন, অফিসে করুন, রাস্তায় কেন? জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করছেন কেন? শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের নামে অশান্তি পূর্ণ ক্ষেত্র তৈরি করছেন। ৫ জানুয়ারির নির্বাচন বানচাল করার মত কার্যক্রম করা কি শান্তিপূর্ণ আন্দোলন?’
খালেদা জিয়ার জামিন প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, খালেদা জিয়া জামিন পেলে নিয়ম অনুযায়ী আদালতের মাধ্যমেই পাবেন। না পেলে আদালত দেখবেন। এখানে সরকারের কোন প্রকার হস্তক্ষেপ নেই। আমাদের নেত্রী (শেখ হাসিনা) বলেছেন, অপকর্ম অপকর্মই আর অপরাধ অপরাধই। অপরাধী কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।
আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির চেয়ারম্যান ড. হোসেন মনসুরের সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক প্রকৌশলী আব্দুস সবুর। আরও বক্তব্য রাখেন উপ-কমিটির সদস্য ইমরান আহম্মেদ এমপি, একাব্বর হোসেন এমপি, নূর জাহান বেগম মুক্তা, প্রকৌশলী ফজলুল হক, আবু সালেহ মো. সাঈদ প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here