Tuli-Art Buy Best Hosting In chif Rate In Bd

সংগীতশিল্পী পাপন নির্দোষ। রিয়ালিটি শোয়ের প্রতিযোগীর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক গুরু-শিষ্যের মতোই। তাই তাঁর চুমু খাওয়াতে কোনও অশালীনতা ছিল না। এমন দাবি করেছিলেন খোদ ওই নাবালিকার বাবা। এবার পাপনের সমর্থনে খুল খুলল নাবালিকাও।

ভয়েস কিডস সিজন-২ নামে একটি রিয়ালিটি শোয়ে বিচারকের ভূমিকায় রয়েছেন পাপন। সেখানেই হোলি স্পেশাল এক এপিসোডের শুটিংয়ে প্রতিযোগীরাও রং খেলায় মজেছিলেন। সেই আবেশেই এক নাবালিক প্রতিযোগীকে চুমু খান পাপন। তার আগে প্রতিযোগীর গালে আবিরও মাখান তিনি। পুরো ঘটনাটি ফেসবুকে লাইভ থাকাকালীন ঘটে। তাই নেটদুনিয়ায় তা ছড়িয়ে পড়তে বিশেষ সময় লাগেনি। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী রুণা ভুঁইয়া গায়কের বিরুদ্ধে আপত্তিকরভাবে চুমু খাওয়ার অভিযোগ তোলেন। শুধু তাই নয়, শিশু সুরক্ষা প্যানেল গায়কের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছিল। যার ভিত্তিতে অসম পুলিশ তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে। মঙ্গলবার তাঁকে শুনানির জন্য ডাকা হতে পারে। কিন্তু গোটা বিষয়টিকে কোনওভাবেই সমর্থন করছে না ওই নাবালিকা। এবার নিজেই সে জানিয়ে দিল, পাপন তাঁর কাছে গুরু তথা বাবার মতোই। আর তাই তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা এসব অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।

রিয়ালিটি শোয়ে যেসব প্রতিযোগীরা অংশ নিয়েছে, তাদের প্রত্যেকের অভিভাবকরা একত্র হয়ে একটি ভিডিও প্রকাশ্যে এনেছেন। যেখানে তাঁদের প্রত্যেকের মুখ থেকে শোনা যাচ্ছে একই কথা। বলিউডের অন্যতম সফল ও জনপ্রিয় গায়ক পাপন যে নির্দোষ, সে কথাই বারবার জানাচ্ছেন তাঁরা। সেই সঙ্গে তাঁদের অনুরোধ, স্নেহের চুম্বনকে এমন নোংরাভাবে যেন ব্যাখ্যা না করা হয়। সেই ভিডিওতেই ওই নাবালিকা বলে, “পাপন স্যর যেভাবে নিজের সন্তানকে চুমু খান, সেভাবেই আমাকে চুমু খেয়েছিলেন। আমার বাবা-মাও এভাবেই আমায় স্নেহ করেন। তাঁর আচরণে কোনও পার্থক্য ছিল না।” নাবালিকার মতোই তাঁর বাবাও গোটা ঘটনায় অত্যন্ত হতাশ। এমন একজন গায়কের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হওয়ায় বেশ বিরক্তও তিনি। সকলকে অনুরোধ জানিয়েছেন, বিষয়টি নিয়ে যেন আর কাটাছেড়া না করা হয়। তবে এমন ঘটনা মানসিকভাবে আঘাত পেয়েছেন পাপন। আর তাই রিয়ালিটি শোয়ের বিচারকের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি।