Tuli-Art Buy Best Hosting In chif Rate In Bd

ফ্যাশন শোয়ের মার্জার সরণি হোক কিংবা খেলার মঞ্চ, কোনও মহিলা যদি পোশাক নিয়ে সমস্যায় পড়েন তাহলে সেই মুহূর্তে তাঁর মনের অবস্থাটা ঠিক কেমন হয়, এ শুধু তিনিই জানেন। নেটদুনিয়ায় তাঁদের পোশাক বিভ্রাট নিয়ে নানা টিটকিরি মশকরা হয়। কিন্তু সেই মহিলার জীবনে এমন স্মৃতি দুঃস্বপ্ন হয়েই রয়ে যায়। পিয়ংচ্যাংয়ে চলতি শীতকালীন অলিম্পিকে গ্র্যাব্রিয়েলা পাপাডাকিসের সঙ্গে ঠিক এমন ঘটনাই ঘটল।

সোমবার অলিম্পিকের আইস ডান্স প্রতিযোগিতায় পার্টনার গুইলাউমে সিজেরোঁর সঙ্গে অংশ নিয়েছিলেন প্রতিভাবান ফরাসি স্কেটার গ্র্যাব্রিয়েলা। প্রতিযোগিতার অন্যতম ফেভরিট তারকার পারফরম্যান্স দেখতে মুখিয়ে ছিলেন সকলেই। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত সেই সময়ই তাঁর সবুজ পোশাকের একটা অংশ সরে গিয়ে বক্ষ উন্মুক্ত হয়ে পড়ে। তবে এমন পরিস্থিতিতেও নিজের পারফরম্যান্স থামিয়ে দেননি ২২ বছরের স্কেটার। দ্রুত বক্ষদেশ ঢাকার চেষ্টা করেন গ্র্যাব্রিয়েলা। কিন্তু পারেননি। আইস ডান্সের শেষে পোশাক ঠিক করার সময় তাঁর চোখের কোণ জলে ভিজল।
তবে বিষয়টি এখানেই শেষ হয়ে যায়নি। সেই মঞ্চের জায়ান্স স্ক্রিনে রি-প্লে দেখানোর সময় স্লো-মোশনে গোটা ঘটনাটি বেশ কয়েকবার দেখানো হয়। আর এতেই ভেঙে পড়েন গ্র্যাব্রিয়েলা। পারফরম্যান্সের শেষে চোখ মুছতে মুছতে তিনি বলেন, “অলিম্পিকের এই ঘটনা আমার জীবনে দুঃস্বপ্ন হয়েই রয়ে গেল। ঘটনাটা যখন ঘটে, ঠিক তখনই বুঝতে পারি। কিন্তু মনকে বোঝাই, যাই হয়ে যাক, পারফরম্যান্স চালিয়ে যেতেই হবে। আর সেটাই করেছি। এমন পরিস্থিতিতেও আমরা যা করেছি তার জন্য গর্বিত।” খেলার ভাষায় একেই হয়তো স্পোর্টসম্যান স্পিরিট বলে। আর সেই কারণেই প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় স্থানে শেষ করে ফরাসি জুটি।
তবে এমন ঘটনা নতুন নয়। এর আগেও দক্ষিণ কোরিয়ার স্কেটার মিন ইউরা অলিম্পিকে এমনই পোশাক বিভ্রাটে পড়েছিলেন। তবে পরিস্থিতি সামলে দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছিলেন তিনি।