নড়াইল পৌর নির্বাচন, সম্ভাবনা নড়াইলে জাহাঙ্গীর, কালিয়ায় হীরা

107

নড়াইল কণ্ঠ : আজ ৩০ ডিসেম্বর বুধবার সকাল ৮টা হতে নড়াইল দু’টি পৌরসভা নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শুরু। চলবে একটানা বিকাল ৪টা পর্যন্ত। নড়াইলে ১৪টি এবং কালিয়া ৯টি ভোট কেন্দ্রের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হবে। ইতিমধ্যে প্রিজাইডং ও পলিং অফিসার,নিরাপত্তা কর্মী, ভোটগ্রহণের সকল সরঞ্জামাদি সকল ভোট কেন্দ্রে পৌঁছে গেছে। এখনই ভোট শুরু হবে। নির্বাচন কমিশন ভোট অবাধ ও নিরপক্ষ করতে বিজিবি, পুলিশ, র‌্যাব মোতায়ন করেছে। ভোট প্রতিটি নাগরিকের গণতান্ত্রিক অধিকার। সময় মত ভোটারগণ ভোট কেন্দ্রে যেয়ে প্রদানের জন্য নির্বাচন কমিশন আহবান জানিয়েছে।

মুলত: ৪স্তর বিশিষ্ট স্থানীয় সরকার কাঠামো। যেমন-জেলা পরিষদ, উপজেলা পরিষদ, সিটি কর্পোরেশন, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদ এসব গুলোই স্থানীয় সরকার। প্রায় দেড়-দু’শ বছরের ইতিহাস স্থানীয় সরকার কাঠমোতে নির্বাচন হয়ে আসছে এলাকার সামাজিক ব্যক্তি, গোষ্টি বা দলনিরপক্ষ মানুষ হিসেবে ভোট দিয়ে ঔএলাকার একজন ব্যক্তিকে পৌরসভার চেয়ারম্যান/মেয়র নির্বাচিত করা হতো। ২০১৫ সাল পৌরসভা নির্বাচন হচ্ছে রাজনৈতিক দলীয় প্রতীকে।

নড়াইল পৌরসভা :
আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী জাহাঙ্গীর হোসেন বিশ্বাস (নৌকা), বিএনপির মনোনীত প্রার্থী জুলফিকার আলী (ধানের শীষ), বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পারভেজ আলম বাচ্চু (হাতুড়ি), জাসদের সৈয়দ আরিফুল ইসলাম পান্ত (মশাল), জাতীয় পাটির (এরশাদ) অ্যাডভোকেট ফায়েকুজ্জামান ফিরোজ (লাঙ্গল), এনপিপি আনোয়ার হোসেন খান ( আম ) প্রতিকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা।
এছাড়া আ’লীগের বিদ্রোহী গ্রুপের স্বতন্ত্রপার্থী সাবেক জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সোহরাব হোসেন বিশ^াস (নারকেল গাছ) ও জেলা বাস ও মিনিবাস পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি যুব লীগ নেতা সরদার আলমগীর হোসেন আলম ( জগ) প্রতিকে নির্বাচন করছেন।
এছাড়া সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৯ জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১০ জন প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।
নির্বাচন অফিস সূত্রে জানাগেছে, নড়াইল পৌরসভায় মোট ভোটার ২৯ হাজার ৪’শত ৫০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৪ হাজার ৪’শত ৮৮ জন এবং মহিলা ভোটার ১৪ হাজার ৯’শত ৬২ জন। নির্বাচনে ৯ টি ওয়ার্ডে ভোট গ্রহনে কেন্দ্র ১৪টি, কক্ষ ৯০টি কক্ষে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া নির্বাচন সুষ্ঠভাবে সম্পন্নের লক্ষ্যে প্রিজাইডং অফিসার ১৪ জন, সহকারী প্রিজাইডং অফিসার ৯০ জন এবং পোলিং এজেন্ট ১৮০ জন নিয়োগ করা হয়েছে।

কালিয়া পৌরসভা :
কালিয়া পৌরসভায় ৭ জন মেয়র প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এর মধ্যে আওয়ামীলীগের ৫ জন এবং বিএনপির রয়েছে ২ জন প্রার্থী। এর মধ্যে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী কালিয়া উপজেলা আ’লীগের নেতা ওয়াহিদুজ্জামান হীরা(নৗকা), বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী কালিয়া উপলো বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এসএম ওয়াহিদুজ্জামান মিলু(ধানের শীষ)।
স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসাবে বর্তমান মেয়র বিএম এমদাদুল হক টুলু(নারকেল গাছ), ফকির মুশফিকুর রহমান লিটন (চামচ), আওয়ামীগ নেতা শেখ লায়েক হোসেন (মোবাইল ফোন), সোহেলী পারভীন নিরি (জগ) ও এস এম একরাম রেজা (হ্যাঙ্গার) প্রতিকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা।
কালিয়া পৌরসভায় মোট ভোটার ১৪ হাজার একশত ৪৪ জন এর মধ্যে পুরুষ ৭ হাজার ১২ জন এবং মহিলা ৭ হাজার একশত ৩২ জন। নির্বাচনে ৯ টি ওয়ার্ডের ৯ টি কেন্দ্রের ৪৯ কক্ষে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। সুষ্ঠভাবে নির্বাচন পরিচালনার জন্য প্রিজাইডং অফিসার ৯ জন, সহকারী প্রিজাইডং অফিসার ৪৯ জন এবং পোলিং এজেন্ট ৯৮ জন নিয়োগ করা হয়েছে।