নড়াইলে ভাই-বোনকে কুপিতে আহত করেছে সন্ত্রাসীরা

911

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইলে আপন ভাই-বোনকে এলাপাতাড়িভাবে পিঠিয়ে ও কুপিতে মারাত্বক আহত করেছে সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনা কালিয়ার নড়াগাতি থানার কলাবাড়িয়া ইউনিয়নের আইচপাড়া গ্রামে ঘটেছে।
গত শনিবার (৪ নভেম্বর) সকাল ৮টার দিকে বড়নাল মাদ্রসার পূর্বপাশে ইমদাদ হোসেনকে ডেকে নিয়ে মুন্নাফ, ওবাদ মল্লিক ও তাদের সঙ্গীয় ৫/৬জন মো: ইমদাদ হোসেনকে লোহার তৈরী ঝুপি দিয়ে কুপিয়ে মারাত্বকভাবে আহত করে। ভাইয়ের মার ঠেকাতে গিয়ে বোনকেও তারা পিঠিয়ে মারাত্বক আহত করে। আহত মো: ইমদাদ হোসেন (৪২) ও মিলিনা বেগম আইচপাড়া গ্রামের মৃত সাহেব মল্লিকের ছেলে ও মেয়ে।
জানাগেছে, সন্ত্রাসীরা ইমদাদের কাছে চাঁদা দাবী করলে সে চাঁদা দিতে স্বীকার না হওয়ায় মুন্নাফ ও ওবাদ মল্লিকের নেতৃত্বে েইমদাদ ও তার বোনকে কুপিয়ে ও পিঠিয়ে মারাত্বক আহত করে। এ ঘটনায় নড়াগাতি থানায় একটি মামলা হয়েছে। মামলা নং মামলা নং ০১/১২০, তারিখ: ০৪/১১/০১৭ইং।
এলাকাবাসি ও পারিবারিক সূত্রে জানাগেছে, গত ৪ নভেম্বর সকাল ৮টায় বড়নাল মাদ্রসার পূর্বপাশে ইমদাদ হোসেনকে ডেকে নিয়ে মারধর ও কুপিয়ে আহত করে। এ সময় এমদাদের চিৎকার চেচামেছিতে তার বোন এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা তাকেও (মিনিলা) লাঠিসোঠা দিয়ে পিঠিয়ে আহত করে। পরে ইমদাদ ও তার বোনকে তাৎক্ষনিকভাবে কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। এ সময় ইমদাদের অবস্থা অবন্নোতি হওয়ায় ঔদিনই কালিয়া হাসপাতাল হতে তাকে খুলনা ৫’শ শয্যা হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানেও কোন চিকিৎসা না হওয়ায় ঔদিনই পুনরায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সে এখন ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎধীন রয়েছে।
এদিকে নড়াগাতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, গত শনিবার (৪ নভেম্বর) কলাবাড়িয়া ইঊনিয়নের আইচপাড়া গ্রামের পিং মৃত সাহেব মল্লিকের ছেলে মো: ইমদাদ হোসেনকে একই গ্রামের মুন্নাফ ও ওবাদ মল্লিক সহ আরো ৫/৬জনকে আসামী করে ঔদিনই নড়াগাতি থানায় একটি হত্যা চেষ্টা ও চাঁদাবাজির মামলা হয়। মামলা নং ০১/১২০, তারিখ: ০৪/১১/০১৭ইং। এ মামলায় কেউ গ্রেফতার হয়নি।
এলাকায় নাম প্রকাশে অনইচ্ছুক এমন কয়েকজন জানান, আইচপাড়া গ্রামের মুন্নাফ ও ওবাদ মল্লিকগণদের চাঁদাবজি ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। এলাকাবাসি এ ঘটনার ন্যায় বিচার ও আসামীদের দ্রুত গ্রেফতার দাবী করেন।