বাল্যবিয়ের দায়ে সংশ্লিষ্ট জনপ্রতিনিধির পদচ্যুতি কেন নয়, রুল জারি

128

নড়াইল কণ্ঠ : বাল্যবিয়ের জন্য সংশ্লিষ্ট জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে কেন আইনি ব্যবস্থা ও পদচ্যুতির আদেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।
বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর হাইকোর্ট বেঞ্চ পত্রিকায় প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন আমলে নিয়ে ৩০ অক্টোবর সোমবার স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে এই রুল জারি করেন।
রুলে জানতে চাওয়া হয়, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, ওয়ার্ড মেম্বার এবং পৌরসভার ক্ষেত্রে কাউন্সিলররা কেন প্রতিটি বাল্যবিয়ের জন্য দায়ী থাকবেন না, জনপ্রতিনিধি হিসেবে স্ব স্ব এলাকায় প্রতিটি বাল্যবিয়ের জন্য তাদের বিরুদ্ধে কেন আইনি ব্যবস্থা ও পদচ্যুতির আদেশ দেওয়া হবে না।
জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়, আইন মন্ত্রণালয়, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিবকে এই রুলের জবাব দিতে হবে।
এ আদালতের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস জানান, আদালত আগামী ৩ ডিসেম্বর পরবর্তী তারিখ রেখেছে।
এই আদেশের অনুলিপি সব জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কাছে পাঠানোর জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
গত ২৮ অক্টোবর একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত ‘২৪ ঘণ্টায় ৮ বাল্যবিবাহ বন্ধ’ শীর্ষক প্রতিবেদন নজরে নিয়ে আদালত এ আদেশ দেন।
প্রসঙ্গত, ইউনিসেফের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশে বাল্যবিয়ের হার সবচেয়ে বেশি। ১৮ বছর বয়স হওয়া আগেই বাংলাদেশের ৬৬ শতাংশ মেয়ের বিয়ে হয়ে যায়।