নোয়াখালীর সোনালী ব্যাংকের ৫ কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করল দুদক

179

নড়াইল কণ্ঠ : নোয়াখালীতে এক কোটি ৯৭ লাখ ১৬৭০০ টাকা ঋণ জালিয়াতির অভিযোগে সোনালী ব্যাংকের ৫ কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করেছে দুর্নীতি দমন কমশিন।
তারা হলেন, সোনালী ব্যাংক কিশোরগঞ্জ প্রিন্সিপাল অফিসের ডিজিএম মীর আব্দুল লতিফ, প্রধান কার্যালয়ের সংস্থাপন ও প্রকৌশল বিভাগের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী সামছুদ্দোহা নাহাদ, চরবাটা শাখার সিনিয়র অফিসার জাকের উল্লাহ, ফেনী শাখার অফিসার (ক্যাশ) এম এ রহমান ও সূবর্ণচর শাখার সিনিয়র প্রিন্সিপাল ও ব্যবস্থাপক মো. মোস্তাক আহমেদ সিদ্দিকি।
সোমবার(২৩ অক্টোবর) দুপুরে নোয়াখালীর মাইজদী থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয় বলে সাংবাদিকদের জানান নোয়াখালী দুদকের সহকারী পরিচালক তালেবুর রহমান।
তিনি জানান, গ্রেফতার আসামিরা ২০১২ সালে সোনালী ব্যাংকের নোয়াখালী সদর শাখায় বিভিন্ন পদে চাকরিরত অবস্থায় নোয়াখালী ডলফিন সী ফুড ইন্ডাস্ট্রিজের মালিক মো. নিজাম উদ্দিন ফারুককে এক কোটি ৯৭ লাখ ১৬৭০০ টাকা ঋণ দেন।
নিজাম উদ্দিন ব্যাংকের টাকা দিয়ে সামান্য কিছু মাছ কোল্ড স্টোরে রেখে পরবর্তীতে ২ কোটি টাকার মাছ স্টোরে রয়েছে বলে প্রতিবেদন দাখিল করে প্রতারণার আশ্রয় নেন।
তিনি সামান্য কিছু মাছ রেখে পরবর্তীতে বিদ্যুত সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে মাছগুলো পচিয়ে বিনষ্ট করে দেন। এ সময় প্রায় ২ কোটি টাকার মাছ পচে গেছে বলে ব্যাংকে একটি প্রতিবেদনও দাখিল করেন।
এর মাধ্যমে নিজাম উদ্দিন ফারুক ব্যাংকের টাকা পরিশোধ না করে প্রতারণা করে। তবে তদন্তে বিষয়টি ধরা পড়লে আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক।