চাকরি মেলা বৃহস্পতিবার, মিলবে ৩১ প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ

480

নড়াইল কণ্ঠ : চাকরি মেলায় অংশ নিচ্ছে ৩১টি প্রতিষ্ঠান। মেলায় এসে সিভি জমা দিতে হবে। এরপর মৌখিক পরীক্ষা ও যোগ্যতা অনুযায়ী মিলবে ওইসব প্রতিষ্ঠানে চাকরি। বৃহস্পতিবার যশোর শেখ হাসিনা সফটওয়ার টেকনোলজি সফটওয়ার পার্কে চাকরি মেলার আয়োজন করেছে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ। চাকরি মেলা উদ্বোধন করবেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। চাকরি মেলা ঘিরে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের চাকরি প্রার্থীদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া পড়েছে। তবে কত সংখ্যক প্রার্থী নিয়োগ পাবেন, তার সঠিক পরিসংখ্যান দিতে পারেনি কর্তৃপক্ষ। ধারণা করা হচ্ছে ৩১টি প্রতিষ্ঠানে কয়েক শত প্রার্থী চাকরি পাবেন।
চাকরি মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলোরে মধ্যে অন্যতম হলো- সাজ টেলিকম, স্পেকট্রাম ইঞ্জিনিয়ার্স কনসোর্টিয়াম লিমিটেড, স্টেলার ডিজিটাল লিমিটেড, এম্বার আইটি লিমিটেড, অগ্নি সিস্টেমস লিমিটেড, দোহাটেক নিউ মিডিয়া, অগমেডিক্স বাংলাদেশ লিমিটেড, এমসিসি, অন এয়ার ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড, কাজী আইটি সেন্টার, ফিফোটেক, ই-জেনারেশন লিমিটেড, বাক্য, ডিজিকন টেকানোলজিস, ওয়ালটন কম্পিউটার্স, ব্রিলিয়ান্ট আইডিয়া লিমিটেড, যশোর আইটি, প্রিনিয়ার ল্যাব, এনআরবি জবস, ওয়াটার স্পীড, উৎসব টেকনোলজিস লিমিটেড, ডি নেট ইত্যাদি।
সংশ্লিষ্টরা জানান, মেলা উদ্বোধনের পর থেকেই স্টলে প্রার্থীদের বায়োডাটা জমা দিতে হবে। যাচাই বাছাই শেষে প্রার্থীদের ভাইভা নেবে প্রতিষ্ঠানগুলো। যোগ্যতা অনুযায়ী প্রার্থী নিয়োগ চূড়ান্ত করা হবে। বেশিরভাগ কাজই আউটসোর্সিং আর ও বিদেশিদের সঙ্গে যোগাযোগ। এ জন্য ইংরেজিতে পারদর্শী ও আইটি বিষয়ে অভিজ্ঞদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।
জানতে চাইলে শেখ হাসিনা হাইটেক পার্ক প্রকল্পের পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম বলেন, চাকরির মেলার সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৫ অক্টোবর) সকাল ৯টার দিকে চাকরি মেলার উদ্বোধন করবেন তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। একই সাথে সেখানে দিনব্যাপী চলবে সেমিনার, কর্মশালা ও গোলটেবিল বৈঠক।
চাকরি মেলায় ৩১টি প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে। প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের চাহিদা অনুযায়ী জনবল নিয়োগ দিবেন। পুরো নিয়োগ প্রক্রিয়া স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠান সম্পন্ন করবে। এ অঞ্চলের আইটি প্রফেশনালদের সাথে আইটি কোম্পানিগুলোর সরাসরি সংযোগ করে দেওয়ার উদ্দেশ্যে হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষ এ মেলার আয়োজন করেছে।
চাকরি মেলায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, যশোর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট, এমএম কলেজ, বিসিএমসি কলেজসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশ নেবেন। শিক্ষার্থীরা মেলায় চাকরিদাতা ৩০টি স্বনামধন্য কোম্পানিতে বায়োডাটা জমা দেবেন। আশা করছি অন্তত ৩ হাজার বায়োডাটা জমা পড়বে। উদ্যোক্তা তাৎক্ষণিক ভাইবা নিয়ে প্রার্থীদের চাকরি নিশ্চিত করবেন।