গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষন

140

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় প্রতানরার ফাঁদে ফেলে এক কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষনের আভিযোগ পাওয়া গেছে। পুলিশ কলেজ ছাত্রীর বাড়ী থেকে প্রতারক প্রেমিককে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। গতকাল সোমবার  সকালে কলাবাড়ী ইউনিয়নের নলুয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার বিবরনে জানা গেছে কোটালীপাড়া উপজেলার নলুয়া গ্রামের এক যুবতী (১৯) গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু সরকারী কলেজের একাদশ শ্রোনীতে লেখা পড়া করছিল। কিছু দিন আগে টাঙ্গাইল জেলার দেলদুয়াব থানার নলশোঁদা গ্রামের গনি মিয়ার ছেলে সোহাগ মিয়া (৩০) এর সাথে ওই কলেজ ছাত্রীর মোবাইল ফোনে পরিচয় হয়। কলেজ ছাত্রী হিন্দু পরিবারের জেনে সোহাগ মিয়া তার আসল পরিচয় গোপণ রেখে হিন্দু পরিবারের ছেলে পরিচয় দিয়ে  তার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। এমন কি কলেজ ছাত্রীর বাড়ীতে যাতায়াত শুরু করে। এ সময় সোহাগ মিয়া প্রেমিকা কলেজ ছাত্রীকে বিবাহ করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষন করে। সোহাগের চলা ফেরা ও আচরনে কলেজ ছাত্রীর পরিবারের সন্দেহ হলে তারা পুলিশের কাছে ঘটনা খুলে বলে।

পুলিশ প্রতারক প্রেমিক সোহাগ কে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করলেই সোহাগ তার আসল পরিচয় বলে দেয়। এ ব্যাপারে কলেজ ছাত্রীর মা চঞ্চলা বিশ্বাস বাদী হয়ে কোটালিপাড়া থানায় নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনে  একটি মামলা করেছেন। পুলিশ সোহাগ কে জেল হাজতে এবং কলেজ ছাত্রীকে ডাক্তারী পরিক্ষার জন্য গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠায়।