শুধু এ দেশেই নয়, ভিন্ন কারণে মুকুট হারালেন মিয়ানমার সুন্দরীও

241

এই মুহূর্তে বাংলাদেশে চলছে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ নিয়ে তর্ক বিতর্ক। জালিয়াতি ও সত্য গোপন করার অপরাধে সেরা সুন্দরীর মুকুট হারাতে যাচ্ছেন এভ্রিল। এমন সময় জানা গেলো, মিয়ানমারেও একই অবস্থার শিকার হয়েছেন সেখানকার সেরা সুন্দরী। তবে পার্থক্য হচ্ছে, মিস গ্র্যান্ড মিয়ানমার ২০১৭ জয়ী সোয়ে ইয়েন সি সম্প্রতি মিয়ানমারের রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে মন্তব্য করে মুকুট হারালেন।
মিয়ানমার সুন্দরী সম্প্রতি একটি ভিডিও প্রকাশ করেন, যেখানে তিনি বলেন রাখাইনে যে সহিংসতা চলছে, সেটার জন্য আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভাশন আর্মি বা আরসা দায়ী। আরসা প্রতারণার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের সহানুভূতি পাওয়ার চেষ্টা করছে। তিনি আরাসাকে আখ্যা দিয়েছেন ইসলামপন্থী সম্প্রসারণবাদি আন্দোলন হিসেবে। এছাড়াও তিনি মনে করেন, আরসার পিছনে আন্তর্জাতিক ইন্ধন রয়েছে, যাদের লক্ষ্য বেসামরিক মানুষ।
তিন মিনিট ৪১ সেকেন্ডের এই ভিডিওটি প্রকাশের পর সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। ভিডিওটিতে সোয়ে ইয়েন সি’র কথার সঙ্গে মিয়ানমারের সহিংসতার বিভিন্ন স্থির চিত্র দেখানো হয়েছে। ভিডিওর শুরুতেই ১৯ বছর বয়সী সোয়ে ইয়েন সি বলেন, ‘আমার দেশের রাখাইন রাজ্যে সাম্প্রতিক সহিংসতা ও গণহারে চলা হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে আমি প্রতিবাদ জানাবো- এটাই জনগণ আমার কাছ থেকে আশা করে। ‘
আর তাই, মিস ইউনিভার্স মিয়ানমার আয়োজকদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তাকে দেয়া মুকুট, উত্তরীয়, পুরস্কারের অর্থ এবং ট্রফি এসব কিছুই ফেরত দিতে হবে। এরপর সুন্দরী তার অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে মিস ইউনিভার্স মিয়ানমার আয়োজকদের বক্তব্যের ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।
সূত্র : বিবিসি