ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে আপিল বিভাগের কার্যক্রম শুরু

231

নড়াইল কণ্ঠ : ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞার নেতৃত্বে সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের কার্যক্রম আজ শুরু হয়েছে।
সকাল ৯টা ৫ মিনিটে আপিল বিভাগের কার্যক্রম শুরু হয়। অসুস্থতার কথা জানিয়ে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার একমাসের ছুটির পর সংবিধানের ৯৭ অনুচ্ছেদ অনুসারে প্রধান বিচারপতির কার্যভার পালনের দায়িত্ব পেয়েছেন সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের কর্মে প্রবীণতম বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞা।
প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা রাষ্ট্রপতিকে ছুটির বিষয়টি চিঠি দিয়ে জানানোর পর গতকাল সোমবার রাতেই রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে আইন মন্ত্রণালয় বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞাকে প্রধান বিচারপতির কার্যভার পালনে প্রজ্ঞাপন জারি করে। আইনসচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক স্বাক্ষরিত এ প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।
প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, রাষ্ট্রপতি সংবিধানের ৯৭ অনুচ্ছেদ অনুসারে শারীরিক অসুস্থতাজনিত কারণে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার ৩ অক্টোবর থেকে ১ নভেম্বর পর্যন্ত ৩০ দিনের ছুটি মঞ্জুরের বিষয়ে অনুমোদন করেছেন। তার অসুস্থতাজনিত ছুটি ভোগের সময় আপিল বিভাগের কর্মে প্রবীণতম বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞাকে প্রধান বিচারপতির কার্যভার পালনের দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ১৭ জানুয়ারি প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব পাওয়া বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার দায়িত্ব পালনের মেয়াদ রয়েছে আগামী ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত।
এদিকে সাপ্তাহিক ছুটি, বাংলাদেশ সরকারের ঘোষিত ছুটি ও কোর্টের অবকাশের কারণে দীর্ঘ ৩৯ দিন পর আজ থেকে সুপ্রিমকোর্টে নিয়মিত বিচার কার্যক্রম শুরু হয়। সকালেই আপিল বিভাগে বিচারিক কার্যক্রম চলে। এরপর রীতি অনুযায়ি সুপ্রিমকোর্ট গার্ডেনে বার ও বেঞ্চের সৌজন্য সাক্ষাৎ অনুষ্টান হয়। আজ সকাল থেকেই আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থীদের আগমনে মূখরিত হয় সর্বোচ্চ আদালত প্রাঙ্গণ।
গত ২৫ আগস্ট থেকে গতকাল ২ আক্টোবর পর্যন্ত সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট ও আপিল বিভাগে নিয়মিত বিচার কার্যক্রম বন্ধ ছিল। তবে এ সময়ে জরুরি মামলা সংক্রান্ত শুনানি ও নিষ্পত্তির জন্য অবকাশকালীন বেঞ্চে বিচারিক কার্যক্রম পরিচালিত হয়।