নড়াইলে আগুন দিয়ে গৃহবধুকে হত্যার চেষ্টা

103

নড়াইল কণ্ঠ : নড়াইলে আউড়িয়া ইউনিয়নের সীমাখালী গ্রামে পারিবারিক কলহের জেরধরে সবিতা বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধুর গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিয়ে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সবিতা বেগম  সদর থানার সীমাখালী গ্রামের ওহাব বেগের ছেলে কয়েস বেগের স্ত্রী । মঙ্গলবার (০৮ ডিসেম্বর) রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও স্থানীয়দের অভিযোগ পারিবারিক কলহের জেরধরে পাষন্ড স্বামী কয়েস বেগ সহ তার বাড়ীর সদস্যরা  হত্যার উদ্যেশ্যে গৃহবধুর গায়ে  কেরোসিন তেল ঢেলে দিয়ে আগুন দিতে পারে। সবিতা বেগম বাঁচার জন্য দৌড়ে  নড়াইল কালিয়া রাস্তায় আসলে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে তাকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে। ঘটনার পর কয়েস বেগের বাড়ী সদস্যই পলাতক রয়েছে। পুলিশ খবর পেয়ে সবিতা বেগমকে দেখতে নড়াইল সদর হাসপাতালে যায়। এ ঘটনায় পুলিশ গৃহবধুর শাশুড়ি রহিমাকে গ্রেফতার করেছে। সবিতার পিতা গোপালগন্ঞের কাশিয়ানি উপজেলার ধানকোড়া গ্রামের নুর ইসলাম জানায়, আমার কন্যাকে হত্যার উদেশ্য গায়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। ইতোপুর্বে তাকে কয়েকবার নির্যাতনের পর হত্যা চেষ্টাা চালায় জামাই ও তার পরিবার। নুর ইসলাম তার কন্যার সুচিকিৎসার জন্য  সবিতাকে ঢাকায় নেওয়ার জন্য প্রসাশন সহ বিত্তবানদের সাহায্য সহযোগিতা চেয়েছেন।