মুক্তিযোদ্ধাদের কবর একই নকশায় বাঁধানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে-মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

229

নড়াইল কণ্ঠ : মুক্তিযোদ্ধাদের কবর দুই লাখ টাকা ব্যয়ে একই নকশায় বাঁধানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। যাতে একশ বছর পরেও মানুষ চিনতে পারে এটা মুক্তিযোদ্ধার কবর। মঙ্গলবার ( ১ আগষ্ট) দুপুরে নড়াইলের মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স উদ্বোধনকালে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম. মোজাম্মেল হক এ কথা বলেন।
মন্ত্রী আরো বলেন, আগামিতে মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়া হবে। এখন থেকে বিসিএস পরীক্ষায় মুক্তিযুদ্ধের ওপর ১০০ নম্বরের প্রশ্ন থাকবে। শিক্ষার্থীদের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ছড়িয়ে দিতে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এছাড়া অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য প্রতিটি জেলা-উপজেলায় শীঘ্রই বহুতল আবাসিক ভবন নির্মাণ করা হবে।
জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার গোলাম কবিরের সভাপতিত্বে ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার এ্যাডভোটে এসএ মতিনের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, নড়াইলের জেলা প্রশাসক মো: এমদাদুল হক NK_August_2017-02552চৌধুরী, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো: সোহরাব হোসেন বিশ্বাস, পুলিশ সুপার সরদার রকিবুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান শরীফ হুমায়ূন কবীর, বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান জিন্নাহ,বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট সিদ্দিক আহম্মেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুবাস চন্দ্র বোস, সাধারণ সম্পাদক মো: নিজাম উদ্দিন খান নিলু, বীর মুক্তিযোদ্ধা নজীর আহম্মেদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা তবিবর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা পরিবারে পক্ষে সাংবাদিক সাথী তালুকদার প্রমুখ।
এ সময় মন্ত্রী আরো বলেন, আগামি কোরবানীর ঈদে প্রত্যেক মুক্তিযোদ্ধাকে বকেয়া বোনাসসহ বোনাস বাবদ মোট ৩২হাজার ৫শ’টাকা প্রদান করা হবে। বোনাসের সঙ্গে তিনমাসের (জুলাই, আগষ্ট, সেপ্টেম্বর) ভাতা বাবদ ৩০হাজার টাকাও প্রদান করা হবে। অতি দ্রুত সারা দেশের প্রত্যেক মুক্তিযোদ্ধার বক্তব্য রেকর্ডিং করে তা ভবিষ্যতের জন্য আর্কাইভে সংরক্ষণ করা হবে। বিভিন্ন ক্লাসের পাঠ্যসূচিতে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধে বিরোধীতাকারী পাকিস্তানী বাহিনী ও তাদের এদেশীয় দোসর রাজাকার, আলবদর, আল-শামস বাহিনীর সদস্যদের বিতর্কিত ভূমিকা ও দেশ বিরোধী কার্যকলাপ তুলে ধরা হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আগামিতে আওয়ামীলীগ সরকারকে আবার ক্ষমতায় আনতে মুক্তিযোদ্ধাসহ উপস্থিত সকলের প্রতি তিনি আহবান জানান। পরে তিনি লোহাগড়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের উদ্বোধন করেন।