ফেসবুক নয় গুগল আর্থ-ই হবে পরবর্তী বড় সোশ্যাল নেটওয়ার্ক

171

নড়াইলকণ্ঠ : গুগলের পেরেন্ট প্রতিষ্ঠান অ্যালফাবেট আগামী কয়েক বছরের মধ্যেই গুগল আর্থ প্ল্যাটফর্মে ব্যবহারকারীদের লাখেরও বেশি গল্প, ভিডিও এবং ফটো পোস্ট করার সুবিধা দিতে চায়। সম্প্রতি ব্রাজিলে একটি ‘ভয়েজার টুল’ প্রকল্প উদ্ভাবন নিয়ে কথা বলা সময় এই পরিকল্পনার কথা জানান গুগল আর্থের পরিচালক রেবেকা মুর।
পরিকল্পনায় তিনি বলেন, ভয়েজার টুলটি দিয়ে ইন্টারনেট সার্ফাররা বাহিরের কোনো স্থানের তথ্য এবং ছবিসহ ম্যাপে ট্যুর দিয়ে আসতে পারবে। তবে গুগল আর্থ ডিরেক্টর রেবেকা মুর রয়টার্সকে জানান, নিয়মিত ব্যবহারকারী ব্যক্তিগত বা জনসাধারণের ব্যবহারের জন্য নিজেদের অনির্বাচিত কনটেন্টও তৈরি করতে সক্ষম হবে। তিনি আরও বলেন, এগুলো হতে পারে আপনার পরিবার ইতিহাসের গল্প, আপনার প্রিয় হাইকিং ট্রিপের গল্প যেকোনো কিছুই হতে পারে।
ব্রাজিলের সাও পাওলোতে মুর ‘আই অ্যাম দ্য অ্যামাজন’ প্রকল্প উন্মুক্ত করেন। যেখানে খাদ্য, পানি এবং সাংস্কৃতিক উত্সের মত বিষয়গুলিতে অ্যামাজনের রেইনফরেস্টের সাথে এর মানুষদের সম্পর্ক স্পর্শ করে এমন ১১টি সাইট ম্যাপ করেছে। মুর জানান, ‘গুগল আর্থ পৃথিবীর কাছে আমাদের উপহার। আর বাজেটের শর্তে, গুগল বিজ্ঞাপন থেকে চমৎকার রাজস্ব আয় করছে এবং গুগলকে সবকিছু থেকে অর্থ উপার্জন করতে হবে না।’