ঘুষ লেনদেন : সহকারী কর কমিশনারের সাত বছরের কারাদণ্ড

131

নড়াইলকণ্ঠ : ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় অতিরিক্ত সহকারী কর কমিশনার কাজী আশিকুর রহমানকে সাত বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার ঢাকার ৭নং বিশেষ জজ মুন্সী রফিউল আলম আসামির উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন।
আদালত দুই ধারায় তাকে সাত বছরের কারাদণ্ড প্রদান করেন। কারাদণ্ডের পাশাপাশি তাকে ১২ হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়।
দুদকের আইনজীবী আসাদুজ্জামান রানা বলেন, দুদকের দুই ধারায় তাকে সাত বছরের কারাদণ্ড প্রদান করেছেন আদালত। দুর্নীতি দমন কমিশনের আইনের ১৬১ ধারায় দুই বছরের কারাদণ্ড দুই হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের জেল প্রদান করেন আদালত। অপরদিকে দুদকের আইনের ৫(২) ধারায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দশ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে ছয় মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেন।
মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১২ সালের ২০ সেপ্টেম্বর উপ-কর কমিশনারের কার্যালয়, কর সার্কেল -১০৪, ৫নং কর অঞ্চলে করদাতা শেখ মিজানুর রহমানের কাছ থেকে কাজী আশিকুর রহমান ৫০ হাজার টাকা ঘুষ গ্রহণ করেন। এ সময় তাকে হাতেনাতে গ্রেফতার করে দুদক। ওই ঘটনায় রাজধানীর পল্টন থানায় দুদকের সহকারী পরিচালক ফজলুল হক বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।
২০১৩ সালের ২৬ আগস্ট দুদকের সহকারী পরিচালক অজয় কুমার সাহা আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। মামলায় বিভিন্ন সময় ৮ জন সাক্ষ্য প্রদান করেন।