নড়াইলে জমি-জমার সালিসে ২রাউন্ড ফাঁকা গুলি, এক মহিলা আহত

269

নড়াইলকণ্ঠ ॥ নড়াইলে জমি-জমার বিরোধ মীশাংশা সালিসে .২২ বোর রাইফেল দিয়ে দুই রাউন্ড ফাঁকা গুলি এবং এক মহিলা আহত হয়েছে। আহত ভক্ত সরকারের স্ত্রী রেখা রানী সরকারকে নড়াইল সদর হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। শুক্রবার (১৬ জুন) সকাল ১০টায় নড়াইল পৌরসভার কুড়িগ্রাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।
এলাকা ও নড়াইল সদর থানা সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সকালে বেতবাড়িয়া গ্রামের ভক্ত সরকার ও অঞ্জন কুমার সরকারের পৈত্রিক সম্পত্তির কুড়িগ্রাম মৌজায় .৯০ শতক জমির মধ্যে .২০শতক জমি-জমা নিয়ে মাছিমদিয়া গ্রামের মো: হারুন মোল্যার সাথে বিরোধ মীমাংশা সালিস চলছিল। সালিসে মো: হারুন মোল্যা দাবি করেন এ জমির ভেতর তার জমি রয়েছে। নড়াইল সদর থানার এসআই ভবতোষ রায়, পৌর কাউন্সিলর সন্ধ্যা রায়, তুফান খানের উপস্থিতিতে ও অ্যাডভোকেট রবীন্দ্র বিশ্বাসের মধ্যস্থায় এই বিরোধ মীমাংশা কুড়িগ্রাম মৌজার জমির উপরই হচ্ছিল।
এসআই ভবতোষ রায় জানান, সালিসে উভয় পক্ষের কাগজপত্রে দেখা যায় দাবিকৃত জমির খাজনা, নামজারি, আদালতের রায় সবই বেতবাড়িয়া ভক্ত সরকার ও অঞ্জন কুমার সরকারের নামে রয়েছে। বিষয়টি মাছিমদিয়া গ্রামের মো: হারুন মোল্যা মানতে রাজি হয়নি। তিনি সালিসগণকে জানান, এ জমিতে আমার অংশ রয়েছে। এরপর এক পর্যায় এসআই ভবতোষ রায় ও অ্যাডভোকেট রবীন্দ্র বিশ্বাস এলাকার শান্তি রক্ষার জন্য উভয়পক্ষকে জানান আগামি রবিবার নথি দেখে সোমবার রায় জানান হবে। এর মধ্যে মো: হারুন মোল্যার ছেলে বিপ্লব মোল্যা ভক্ত সরকার ও অঞ্জন কুমার সরকারের পক্ষীয় লোকজনদের উদ্দেশ্য করে ইট-পাটকেল ছোড়ে। ইটের আঘাতে ভক্ত সরকারের স্ত্রী আহত হয়। পরে বিপ্লব মোল্যা তাদের বাড়িতে থাকা .২২ বোর রাইফেল এনে সালিসের মধ্যে ২ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করার চেষ্টা করে।
এ সময় সালিসে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, পৌর কাউন্সিলর সন্ধ্যা রায়, তুফান খানসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
নড়াইল সদর থানা ওসি দেলোয়ার হোসেন খান জানান, কুড়িগ্রাম মৌজায় একটি জমি-জমা সংক্রান্ত অভিযোগের ঘটনা তদন্তের জন্য এসআই ভবতোষ রায় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। ঔখানে দুই রাউন্ড ইয়ার গানের গুলি ছুড়ার ছাড়া অন্য কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। আমরা ঐ ইয়ার গানটি যব্দ করেছি।