গোপালগঞ্জে ২স্কুল ছাত্রী ধর্ষণ, ১ ধর্ষক গ্রেফতার

137

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার দুই স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। ধর্ষণের দুইদিন পর সোমবার কাশিয়ানী থানায় ধর্ষিতার চাচা বাদী হয়ে ৩জনসহ আরো অজ্ঞাতনামা ৯/১০জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছে।

জানা গেছে, ফরিদপুর জেলার আলফাডাঙ্গা উপজেলার বেজিডাঙ্গা গ্রামের মোঃ খোকন মোল্যার মেয়ে স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণী ছাত্রী সুরাইয়া খানম (১২) এবং তার চাচাত বোন মোশারেফ মোল্যার মেয়ে নড়াইল এম এ মান্নান উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী পারভিন খানম (১৩) দুলাভাই হৃদয় হোসেনের সাথে কাশিয়ানী উপজেলার হিরণ্যকান্দি গ্রামের শতবর্ষি আম গাছ দেখতে যায়। সন্ধ্যায় সেখান থেকে বাড়ি ফেরার সময়ে উপজেলা বালিয়াডাঙ্গা চারঘাটা নামক স্থানে পৌঁছালে কাশিয়ানী উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের ফিরোজ মোল্যার ছেলে ইশারত মোল্যা (২৭),কাগদি গ্রামের জাফর শেখের ছেলে সোহাগ শেখ (২০), আলফাডাঙ্গা উপজেলার জাট্রি গ্রামের মোঃ হিমু মিয়ার ছেলে মোঃ মোস্তফা (২২) সহ ৯/১০ জন যুবক দুলাভাই হৃদয়ের উপর অস্ত্র ধরে সবাইকে আলাদা করে ফেলে এবং তাদের কে অদূরে বাশঁ ঝোপে নিয়ে যায়।

এ সময়ে তারা ওই দুই স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষন করে ফেলে রেখে চলে যায়। তাদের চিৎকারে আশ পাশের লোকজন তাদের উদ্ধার করে। কাশিয়ানী থানায় সোমবার তিন ধষর্কসহ আজ্ঞাতনামা আরো ৯/১০ জনকে আসামী করে ধর্ষিতাদের চাচা মোঃ ঠান্ডু মোল্যা বাদী হয়ে মামলা করে। পুলিশ আসামী ধর্ষক মোঃ মোস্তফাকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।