অতিরিক্ত সচিব ভিক্ষুকমুক্ত নড়াইল পরিদর্শন, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে একশত টন চাউল বরাদ্দের সুপারিশ

210

নড়াইলকণ্ঠ ॥ জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (এপিডি) শেখ ইউসুফ হারুন নড়াইলে পুনর্বাসিত ভিক্ষুকদের সাথে মতবিনিময় উপকরণ ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেছেন। তিনি নড়াইলের পুনর্বাসিত ভিক্ষুকদের জন্য একশত টন চাউল বরাদ্দ প্রাপ্তির জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করবেন।
NK_May_2017_02334গত বুধবার (০৭ জুন) সকাল ১০টায় নড়াইল সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে নড়াইল পৌরসভার ৩০জন এবং বেলা সাড়ে ১১টায় আউড়িয়া এবিএম মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে ইউনিয়নের ৩০জন পুনর্বাসিত ভিক্ষুকের সাথে মতবিনিময় সময়ে অতিরিক্ত সচিব পুনর্বাসিত ভিক্ষুকের মাঝে ১টি করে শাড়ি/লুঙ্গি, ১টি ওজন মাপক মেশিন এবং ইফতারী সামগ্রী তুলে দেন। তিনি পুনর্বাসিত ভিক্ষুকের সাথে পৃথক পৃথক সাক্ষাৎকার নেন। তাদের বর্তমান ও অতীত সম্পর্কে খোঁজ-খবর নেন। তিনি জানান, নড়াইল জেলার ৭৯৮জন পুনর্বাসিত ভিক্ষুকদের বিশেষ জিআর হিসেবে ১০০ টন চাউল বরাদ্দের জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে সুপারিশ করে ব্যবস্থা করা হবে। বরাদ্দ প্রাপ্তি প্রক্রিয়া গ্রহণের জন্য নড়াইল জেলা প্রশাসককে বলেন।
এরপর অতিরিক্ত সচিব (এপিডি) শেখ ইউসুফ হারুন নাকশী’র পুনর্বাসিত নিহারুনেছা ও ভাটিয়া গ্রামের অধির অধিকারীর বাড়ি পরিদর্শন করেন এবং তাদের পারিবারিক খোঁজ-খবর নেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন নড়াইলের জেলা প্রশাসক মো: এমদাদুল হক চৌধুরী, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব তৌফিক-ই-লাহী চৌধুরী (অতিরিক্ত সচিবের পিএস), অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো: কামরুল আরিফ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( রাজস্ব) কাজী মাহাবুবুর রশীদ, নড়াইল সদরের ইউএনও মোছা: নাছিমা খাতুন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) শিমুল কুমার সাহা, নড়াইলকণ্ঠের সম্পাদক কাজী হাফিজুর রহমান, বিআরডিবি’র কর্মকর্তা মো: মনিরুজ্জামান, আউড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: পলাশ মোল্যা, সাংবাদিক কার্তিক দাস, আসাদুর রহমান, আবুদস সাত্তার, ডানিয়ের সুজিত বোস, সাইফুল ইসলাম তুহিন, মোস্তফা কামল, মধূ সরকারসহ অন্যান্য গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।