সুন্দরবনে র‌্যাব’র সাথে বন্দুকযুদ্ধে দুই বনদস্যু নিহত

125

মোঃ কামরুজ্জামান, বাগেরহাট : বাগেরহাটের পূর্বসুন্দরবনের  চাদপাই রেঞ্জের  উরু বুনিয়া  খাল এলাকায় র‌্যাব-৮ এর সাথে বন্দুক যুদ্ধে বাহিনী প্রধানসহ  দুই বন সদ্যু নিহত । সোমবার সকালে পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের উরুবারিয়ার খালে এই বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলো বনদস্যু মনির বাহিনীর প্রধান মোঃ মনির খলিফা (৩২), এবং ফেরাউন বেলাল বাহিনীর অন্যতম নুর ইসলাম সরদার ওরপে ভোলা (৩৮)। ঘটনাস্থল থেকে ১৮ টি আগ্নেয়াস্ত্র, ৩শ রাউন্ড গোলাবারুদ, মোবাইল ও চাঁদা আদায়ের রশিদ উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

র‌্যাব ৮ এর কর্মকর্তা মো: হাসিবুল হক পরিবর্তন ডটকমকে এ ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন, সোমবার সকালে র‌্যাব ৮ এর একটি টহল দল  নিয়মিত টহল  দিচ্ছিল।

নিয়মিত টহলের সময়ে টহল দলটি সুন্দর বনের চাদ পাই রেঞ্জের  উরু বাড়িয়া খাল এলাকায় পৌছা মাত্র বনের ভিতর একটি বাইন গাছের বনদস্যুদের নিরাপত্তা চৌকি দেখতে পায়। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে বনদস্যুরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়,র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। প্রায় ঘন্টা ব্যাপী বন্দুক যুদ্ধ চলে। এক পর্যায়ে বনদস্যুরা পিছুহটলে সুন্দরবনের ওই স্থানটি তাল্লাশি শুরু করে। এ সময়ে সুন্দরবনের ভিতরে বনদস্যুদের দুইটি গুলিবিদ্ধ মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। গুলিবিদ্ধ মৃত দেহ দু’টি বনদস্যু মনির বাহিনীর প্রধান মোঃ মনির খলিফা (৩২) এবং নুর ইসলাম সরদার ওরপে ভোলা (৩৮) বলে সনাক্ত করে উপস্থিত জেলেরা।

এ সময়ে সুন্দরবনের ভিতরে তাল্লাশী চালিয়ে বনদস্যুদের ব্যবহৃত ১৮ টি আগ্নেয়াস্ত্র, ৭ টি ধারালো অস্ত্র ও ৩শ রাউন্ড গোলাবারুদ উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত মালামাল গুলো হলো -দেশীয় তৈরী এলজি ০৬টি, দেশীয় তৈরী কাটা বন্দুক ০৪টি, দেশীয় তৈরী একনলা বন্দুক ০৪টি, দেশীয় তৈরী দোনালা বন্দুক ০১টি, এয়ারগান ০১টি, বন্দুকের তাজা কার্তুজ ২৬টি,.২২ বোর রাইফেলের গুলি ১৫৩ রাউন্ড, এয়ার গানের গুলি ২২৭টি, বন্দুকের ফায়ারকৃত কার্তুজ ৩৩টি, দেশীয় তৈরী ধারালো অস্ত্র/রামদা ০৭টি, বান্ডুলিয়ার ০২ টি, টর্চলাইট ০২ টি, তাস ০১ সেট, চাঁদা আদায়ের কার্ড হিসেবে ব্যবহ্নত লেমিনেটিংকৃত ১০৪ টাকা, মোবাইল সেট ০১টি, সীমকার্ড ০১টি এবং বিপুল পরিমান রশদ সামগ্রী ও তৈজষপত্র। নিহত দুই বনদস্যু ও উদ্ধারকৃত মালামাল বাগেরহাটের মংলা থানায় হস্তান্তর করা হবে বলে তিনি জানান।