নড়াইলে অন্যরকম অনুভূতির বিশ্ব ভালবাসা দিবস

327

নড়াইলকণ্ঠ ॥ নড়াইলে অন্যরকম অনুভূতির বিশ্ব ভালবাসা দিবস পালন করেছে এ প্রজন্মে শিশু প্রেমি বন্ধুরা। “আমরাই আছি শিশুদের পাশে” নড়াইল সদরের শিশু প্রেমি বন্ধুমহল আমরা “ক” জনের আয়োজনে মঙ্গলবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) শহরের রূপগঞ্জ এলাকায় একটি শপিং কমপ্লেক্সের সামনে অহসহায় হতদরিদ্র ছিন্নমুল শিশুদের নিয়ে কেক কেটে, ক্যাটবেরি চকলেট, ফুলেল শুভেচ্ছা ও মিষ্টি বিতণের মধ্যদিয়ে পালন করে দিবসটি।
এসময় ছিন্নমূল শিশুদের মধ্যে ফুল বিনিময় শুরু হয়। একে অপরকে রজনীগন্ধা ফুল লেন দেনের মধ্যদিয়ে অকৃত্রিম হাসিমুখে নিজেদের মধ্যে ভালবাসা বিনিময় করে। তাদের এ অকৃত্রিম ভালবাসার দৃশ্য দেখে উপস্থিত সকলে কয়েক মূর্হুত এলাকায় নি:শব্দ হয়ে পড়ে। এ এক অন্যরকম অনুভুতি। অনেকে আনন্দে আবেগে আপ্লুত হয়ে কেউ কেউ চোখের জল ঠেকাতে পারেনি।
এ সময় উপস্থিত আসলাম খান লুলু তার অনুভুতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, এখনকার সময়ে ১৪ ফেব্রুয়ারি ভালবাসা দিবসে যে দৃশ্য দেখি তাতে কোন প্রাণ খুজে পাওয়া যায় না। আজ যাদেরকে এ প্রজন্মের ছেলে মেয়েরা যা দেখালো তা সত্যিই নিজের হৃদয় বরে উঠলো। ভালবাসা কাকে বলে। আজ এ শিশুরাই বুঝিয়ে দিল ভালবাসতে কোন সাজগোজ লাগে না, লাগে মন এবং প্রকৃতির পরিবেশ।
আয়োজক শাহ্পরান, সতেজ, রিশদি জানান, আমরা সবাইকেই ভালোবাসি, কিন্তু যারা সমাজের অবহেলিত, অনেকেই তাদের অবহেলার চোখে দেখে, তাই আজ আমাদের এ ব্যতিক্রম ধর্মি আয়োজন। বিশেষ করে নড়াইলের ফুলের দোকানে ক্রেতাদের ভিড় দেখা গেছে। সব বয়সের ক্রেতারা ফুল কিনছেন ভালবাসার মানুষের জন্য।
অপরদিকে নড়াইল শহরের ফুলের দোকানে সকাল থেকেই জমে উঠেছে কেনা বেচা। গোলাপ, রজনীগন্ধ্যাসহ সব রকমের ফুল বিক্রি হচ্ছে বলে জানালেন বিক্রেতারা। তবে গোলাপের চাহিদায় বেশী। প্রতি পিচ গোলাপ ২০ থেকে ২৫ টাকা দরে এবং রজনীগন্ধা বিক্রী হচ্ছে ১০ থেকে ১৫ টাকা করে।