নড়াইলে বিএনপি নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

87

নড়াইল কণ্ঠ : বিএনপি নেতা গাজী রয়িজুর রহমান ওরফে বেবী গাজীকে (৫৫) কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার (২৮ নভেম্বর) বিকাল ৫টার দিকে নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার তার গ্রামের বাড়ি ধলইতলা থেকে তাকে কুপিয়ে হত্যা করে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানাগেছে, বেবী গাজী বিকালে তার এক আত্মীয়কে লোহাগড়া উপজেলা শহর থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা করে দিয়ে নিজবাড়ি কোটাকোল ইউনিয়নের ধলইতলা গ্রামে যাচ্ছিলেন। তিনি ধলইতলা গ্রামের নওশের মিয়ার বাড়ির পূর্ব পার্শ্বে পৌঁছালে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা দুর্বৃত্তরা তার ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে বেপরোয়াভাবে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় ঘটনাস্থলেই বেবী গাজীর মৃত্যু হয়।

বিএনপির দলীয় সূত্রে জানাগেছে, বেবী গাজী নড়াইল জেলা ও লোহাগড়া উপজেলা বিএনপির সাবেক সদস্য, কোটাকোল ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ইউনিয়ন যুবদলের সাবেক সদস্য ছিলেন। এছাড়া তিনি নড়াইল জেলা সমবায় ব্যাংক লিমিটেডের সভাপতির দায়িত্ব পালনসহ  বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত ছিলেন। এলাকায় একজন প্রভাবশালী নেতা হিসেবে তিনি বেশ পরিচিত ছিলেন।

জানাগেছে, লোহাগড়া উপজেলা পরিষদের সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীম আরা সুলতানা লাকির বাড়ি ধলইতলা গ্রামে। এলাকায় আধিপত্য নিয়ে বেবী গাজীর সাথে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এই বিরোধের জের ধরে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটতে পারে বলে একাধিক সূত্র মনে করছেন।

লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ কামরুজ্জামান হত্যাকান্ডের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।